kalerkantho

সোমবার। ২৩ জানুয়ারি ২০১৭ । ১০ মাঘ ১৪২৩। ২৪ রবিউস সানি ১৪৩৮।


আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে পরীমনির ক্ষোভ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ মার্চ, ২০১৬ ১৪:২৮



আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে পরীমনির ক্ষোভ

ভারতীয় দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকায় নিজেকে নিয়ে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনের বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের আলোচিত নায়িকা পরীমনি। আজ শনিবার নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে এক স্ট্যাটাসে শুক্রবার দৈনিকটির অনলাইন সংস্করণে প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনর বিষয়ে কথা বলেন তিনি। ঢাকাই তারকা পরীমনির মতে, আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে তাকে ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। এর প্রতিবাদও জানিয়েছন তিনি। পরীমনি বলেন, হে, ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকা। আমি পরী। বাংলা ছবির নায়িকা। আর এ খ্যাতিটা আমাকে দিয়েছে আমার দেশের চলচ্চিত্র, আমার দেশের মানুষ, আমার দেশ। আর সেই আমার দেশের সাদা মনের মানুষদের নিয়ে কটূক্তি করার মতো জারজ আমি নই।

তিনি বলেন, হা আমি সেই বেজন্মাকে হিংসুটে বলেছি যে হিংসার বশে আমার নামে মিথ্যা নোংরা খবর রটিয়েছিল। তার মানে এটা দাঁড়ায় না যে আমি আমার বাংলাদেশের মানুষকে হিংসুটে বলেছি। আর যেটা শিরোনাম করেছেন সেটা ছিল যদির ওপর ভিত্তি করে। ধরুন, যদি আমি এখন প্রধানমন্ত্রী হই তাহলে(.............)। ওটাও অমনই বলেছিলাম যে আমি অভিনয়শিল্পী। চরিত্রের প্রয়োজনে আমাকে খুনি, পুলিশ, ডাক্তার, গোয়েন্দা এবং যদি বিকিনি প্রয়োজন হয় আমি করতে পারবো। তার মানে এই দাঁড়ায় না যে আমি ওই বিকিনিই পরবো। এমন যদি, প্রশ্নের উত্তর শিরোনাম হওয়া আসলেই দুঃখজনক। জানি না, ভারতের পত্রিকা আমাদের বাংলাদেশের শিল্পীদের নিয়ে দুকলম হিজিবিজি লিখে এ রকম অস্বস্তিকর অবস্থায় কেন ফেলে দেয়!

পরীমনি বলেন, হয়তোবা ইচ্ছাকৃত হয়তোবা না বোঝার ভুল। ভুলে আমার সন্দেহ আছে। কারণ, ভুল বারবার হওয়াটা অস্বাভাবিক। আর বড় কোনো ভুল করার পর আরো বেশি সচেতন হওয়াটা স্বাভাবিক। এ রকম বাজেরকম ভুল নুসরাত আপুকে নিয়েও করেছিলেন ভারতের পত্রিকা। দৈনিকটির প্রতিবেদকের উদ্দেশে পরীমনি বলেন, তবে শুটিং এ আমাকে নানাধরনের পোশাক পরতে হয়। আর তখনই আপনি ওই যদি প্রশ্নটা করেছিলেন। কিন্ত ছাপানোর সময় আপনি অনেক প্রয়োজনীয় কথা আপনার নিজের ঝুলিতে রেখে দিলেন আর আমার শুভাকাঙ্ক্ষী এবং ভক্তদের বিভ্রান্ত করলেন।

নিজের দেশের সংবাদমাধ্যমের প্রতি আলোচিত এই নায়িকা বলেন, হে, আমার দেশের পত্রিকা। আমরাই সেরা। আমরাই সত্যি। আমরাই শক্তি। আরে আপনাদের তো গর্ব করা উচিত যে আপনাদের দেশের একজন শিল্পী, আপনাদের গড়া পরীকে নিয়ে বিদেশেও খবর ছাপায়। আপনি আপনার দেশের শিল্পী কে অসম্মান করছেন একটা বিদেশি পত্রিকার ওপর ভিত্তি করে! এর থেকে দুঃখজনক কিছু হয় না। বরং এর প্রতিবাদ করা উচিত।

সংবাদকর্মীদের উদ্দেশে পরীমনি বলেন, এই পরীটা আপনাদের। তার সম্মান তো আপনাদের সম্মান। আর আমি আমার দেশের সাংবাদিকদের শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা রেখে অনুরোধ জানাচ্ছি, দয়া করে আমাকে প্রশ্ন করে, বিযয়গুলো বিস্তারিত জেনে সংবাদ করবেন আশা করি।

 


মন্তব্য