kalerkantho

পাকুন্দিয়ায় বিএনপির ভোটের আশায় মাঠে জাপা প্রার্থী!

পাকুন্দিয়া (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২০ মার্চ, ২০১৯ ১৯:০৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাকুন্দিয়ায় বিএনপির ভোটের আশায় মাঠে জাপা প্রার্থী!

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলায় তৃতীয় ধাপে আগামী ২৪ মার্চ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনে আ.লীগের কোনো বিদ্রোহী প্রার্থী ও বিএনপির কোনো স্বতন্ত্র প্রার্থী নেই। প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আ.লীগ ও জাতীয় পার্টির প্রার্থী। বিএনপি মাঠে না থাকায় এ সুযোগটাকে কাজে লাগাতে বিএনপির ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী।

এ উপজেলায় আ.লীগ থেকে মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী উপজেলা আ.লীগের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক ও বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম রেনু। তিনি তৃতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান পদে এ নির্বাচনে লড়ছেন। তার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন জাতীয় পার্টি মনোনীত লাঙল প্রতীকের প্রার্থী অ্যাডভোকেট মো. জাহাঙ্গীর আলম শওকত। তিনি প্রথমবারের মতো এ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন। দলের মূল ও প্রবীণ নেতাকর্মীসহ প্রায় সকলেই আ.লীগ প্রার্থীর সঙ্গে আছেন শুরু থেকেই। তবে মনোনয়ন বঞ্চিত দুই-তিনজন নেতাসহ কিছু নেতাকর্মী সমর্থক নৌকার বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

অপরদিকে বিএনপির কোনো প্রার্থী মাঠে না থাকায় তাদের ভোটের আশা নিয়ে মাঠে লড়ছেন জাতীয় পার্টির প্রার্থী অ্যাডভোকেট মো. জাহাঙ্গীর আলম শওকত।

উপজেলা জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক বজলুর রহমান বলেন, এ নির্বাচনে আ.লীগের কিছু অংশের ভোট এবং বিএনপির অধিকাংশ ভোট পেয়ে আমরা এ নির্বাচনে বিজয়ী হবো বলে আশা করছি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট মো. জাহাঙ্গীর আলম শওকত একই সুরে বলেন, আশা করছি সকল দল থেকেই আমি ভোট পাব। আমি বিজয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী।

এ ব্যাপারে উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট মো. জালাল উদ্দিন বলেন, দলের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের বাহিরে যাওয়া আমাদের কোনো সুযোগ নেই। তাই এ নির্বাচনে আমাদের কোনো নেতাকর্মী ভোট কেন্দ্রে যাবেও না, ভোট দেবেও না। 

মন্তব্য