kalerkantho


রাজনৈতিক দলের সঙ্গে ইসির সংলাপ ২৪ আগস্ট থেকে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ আগস্ট, ২০১৭ ১১:০৪



রাজনৈতিক দলের সঙ্গে ইসির সংলাপ ২৪ আগস্ট থেকে

বিশেষ প্রতিনিধি

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ঘোষিত রোডম্যাপ বা কর্মপরিকল্পনা অনুসারে আগামী ২৪ আগস্ট থেকে ৪০টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের সঙ্গে পর্যায়ক্রমে সংলাপে বসতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। রোডম্যাপে রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপের সময় নির্ধারিত রয়েছে আগস্ট থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

সে হিসাবে আগস্টেই প্রথমে ছোট দুটি দলের সঙ্গে সংলাপ হতে যাচ্ছে। ওই দুটি দল হচ্ছে বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট-বিএনএফ ও বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সঙ্গে সংলাপ হবে ঈদুল আজহার পর। ইসি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, প্রতিটি রাজনৈতিক দলের ১০ জন প্রতিনিধি সংলাপে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবেন। তবে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ এবং ক্ষমতার বাইরের বড় দল বিএনপি চাইলে ইসির অনুমতি নিয়ে প্রতিনিধি বাড়াতে পারবে।

ইসি সচিবালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ জানিয়েছেন, আগস্টের শেষ সপ্তাহে রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপ শুরু হবে। প্রতিদিন দুটি করে ঈদের আগে ছয়টি দলের সঙ্গে সংলাপ করা হবে। ঈদের পর ১০ সেপ্টেম্বর থেকে বাকি রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে ধারাবাহিকভাবে সংলাপ অনুষ্ঠিত হবে।

ইসি সূত্রে জানা গেছে, আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে ২৪ আগস্ট সকাল ১১টায় রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপ শুরু হবে। দ্বিতীয় দফায় সংলাপ হবে ওই দিন বিকেল ৩টা থেকে। ঈদের আগে বিএনএফ, সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট ছাড়া বাংলাদেশ মুসলিম লীগ-বিএমএল, খেলাফত মজলিস, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি ও জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপার সঙ্গে সংলাপ হবে। ঈদের পর ১০ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের সঙ্গে সংলাপ হবে। সর্বশেষ সংলাপ হবে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপির সঙ্গে। রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন তালিকার শেষদিক থেকে সংলাপ শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বর্তমান কমিশন। সেই হিসেবে বিএনপির একদিন পর আওয়ামী লীগের সঙ্গে সংলাপ হবে। সেপ্টেম্বরের ২০ তারিখের পর আওয়ামী লীগ-বিএনপির সঙ্গে সংলাপ হতে পারে।

এদিকে আগামী ১৬ ও ১৭ আগস্ট থেকে সিনিয়র সাংবাদিকদের সঙ্গে সংলাপ শুরু হচ্ছে। দুই ধাপে এই সংলাপের প্রথম দিনে প্রিন্ট মিডিয়ার এবং দ্বিতীয় দিনে ইলেকট্রনিক-অনলাইন মিডিয়ার সম্পাদক ও সাংবাদিক নেতাদের সঙ্গে সংলাপ হবে। সাংবাদিক নেতা হিসেবে জাতীয় প্রেস ক্লাব, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদক আমন্ত্রিত হচ্ছেন। এ সংলাপে গণমাধ্যমের ৬০ জন প্রতিনিধিকে আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে। তবে আমন্ত্রিত কেউ সংলাপে অনুপস্থিত থাকলে পরে লিখিত বক্তব্য বা সুপারিশ জমা দেওয়ার সুযোগ পাবেন বলে জানিয়েছেন ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব।


মন্তব্য