kalerkantho

মাংস সংরক্ষণ

কোরবানির মাংসের বড় একটা অংশই সংরক্ষণ করা হয়। মাংস সংরক্ষণ করতে হবে খুব সতর্কতার সঙ্গে। বারডেম হাসপাতালের পুষ্টিবিদ শামসুন্নাহার নাহিদ জানিয়েছেন মাংস সংরক্ষণ পদ্ধতি। কথা বলেছেন এ এস এম সাদ

১৩ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০



মাংস সংরক্ষণ

মডেল : মাশিয়াত, ছবি : মালিয়াত বিনতে

নিয়মিত ফ্রিজ ব্যবহারের কারণে ফ্রিজের ভিতর-বাহির ময়লা হয়ে যায় সহজেই, তাই প্রথমেই ভালোভাবে ফ্রিজ পরিষ্কার করে নিতে হবে। ফ্রিজে আগের মাছ ও মাংসের কারণে গন্ধ হতে পারে। তাই একটু সময় নিয়ে ফ্রিজ পরিষ্কার করতে হবে। মাংস ফ্রিজে রাখার আগে খেয়াল রাখতে হবে, যাতে মাংসে কোনো রক্ত লেগে না থাকে। ধোয়ার পর অতিরিক্ত পানি ঝরানোর জন্য ফ্রিজে রাখার আগে বড় ঝুড়িতে রেখে দিতে পারেন। মাংস থেকে পানি ঝরে গেলে পলিথিন বা প্লাস্টিকের প্যাকেটে রেখে ভালোভাবে মুখ বন্ধ করে ফ্রিজে রাখতে হবে।  মাংসের টুকরা বড় না করে মাঝারি কিংবা ছোট করে রাখতে হবে।

কোরবানির পর তিন থেকে চার ঘণ্টা মাংস শক্ত থাকে, তাই এ সময় ফ্রিজে না রাখাই ভালো। মাংস যখন একটু নরম হবে তখন ফ্রিজে রাখতে হবে।

ফ্রিজে মাংস রাখতে মোটা ও ভালো মানের পলি পেপার ব্যবহার করতে হবে।

ফ্রিজে প্রতিটি মাংসের প্যাকেটের মাঝে মোটা কাগজের টুকরা দিয়ে রাখা যেতে পারে। এতে একটি মাংসের প্যাকেটের সঙ্গে অন্য প্যাকেট আটকে যাবে না।

মাংস সংরক্ষণের জন্য অবশ্যই নতুন ও পরিষ্কার প্যাকেট ব্যবহার করতে হবে। পুরনো বা আগের ব্যবহৃত পলিথিন ব্যবহার করলে মাংস গন্ধ হয়ে যেতে পারে। ফ্রিজে মাংস রাখার পর তাপমাত্রার দিকে খেয়াল রাখতে হবে। প্রয়োজনে তাপমাত্রা কমিয়ে দিতে হবে।

 

ফ্রিজ না থাকলে

জ্বাল দিয়ে সংরক্ষণ : মাংস ভালোভাবে ধুয়ে পরিমাণমতো হলুদ-লবণ মাখিয়ে পানি দিয়ে জ্বাল দিতে হবে। এই মাংস দিনে অন্তত দুইবার জ্বাল দিলে দীর্ঘদিন ভালো থাকবে। এভাবে সংরক্ষণের ক্ষেত্রে মাংসে চর্বির পরিমাণ বেশি থাকলে মাংস অনেক দিন ভালো থাকে।

রোদে শুকিয়ে সংরক্ষণ : এ প্রক্রিয়ায় মাংস রোদের তাপে শুকিয়ে ফেলা হয়। ফলে মাংসে কোনো পানি থাকে না। তাই দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করা যায়। এ ক্ষেত্রে প্রথমে মাংস ছোট টুকরা করে কেটে নিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে, যেন কোনো চর্বি না থাকে। এবার চিকন তারে গেঁথে মাংস রোদে শুকাতে হবে। ছাদে, বারান্দায় বা উঠানে মাংস শুকাতে দিলে পাতলা কাপড়ে পেঁচিয়ে মাংস শুকাতে দেওয়া উচিত। এতে মাংসে ধুলা-ময়লা পড়বে না। টানা পাঁচ থেকে ছয় দিন মাংস রোদে শুকাতে হবে। এতে মাংস থেকে সমস্ত পানি শুকিয়ে যাবে।

তবে রোদ না থাকলে এই পদ্ধতি অনুসরণ না করাই ভালো, কারণ ভালোভাবে না শুকালে মাংস নষ্ট হয়ে যেতে পারে। রোদে শুকানো মাংস রান্নার আগে হালকা গরম পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে। এতে মাংস নরম হবে।



মন্তব্য