kalerkantho

বৈশিষ্ট্য

ট্রপোমণ্ডল

নবম-দশম শ্রেণির ভূগোল ও পরিবেশ বইয়ের পঞ্চম অধ্যায়ে ট্রপোমণ্ডলের ওপর আলোচনা আছে]

২৬ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



ট্রপোমণ্ডল

এই স্তরটি বায়ুমণ্ডলের সবচেয়ে নিচের স্তর, ভূপৃষ্ঠের সঙ্গে লেগে আছে। মেঘ, বৃষ্টিপাত, বজ্রপাত, বায়ুপ্রবাহ, ঝড়, তুষারপাত, শিশির, কুয়াশা—সব কিছুই এই স্তরে সৃষ্টি হয়। ট্রপোমণ্ডলের শেষ প্রান্তের অংশের নাম ট্রপোবিরতি। এই স্তর ভূপৃষ্ঠ থেকে নিরক্ষীয় অঞ্চলে প্রায় ১৬-১৯ কিলোমিটার এবং মেরু অঞ্চলে প্রায় ৮ কিলোমিটার পর্যন্ত বিস্তৃত।

♦ ভূপৃষ্ঠ থেকে উচ্চতা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে বায়ুর ঘনত্ব ও উষ্ণতা কমতে থাকে।

♦ উচ্চতা বৃদ্ধির ফলে বাতাসের গতিবেগ বেড়ে যায়।

♦ নিচের দিকের বাতাসে জলীয়বাষ্প বেশি থাকে।

♦ ধূলিকণার অবস্থানের ফলে সমগ্র বায়ুমণ্ডলের ওজনের প্রায় ৭৫ শতাংশ এই স্তর বহন করে।

♦ যে উচ্চতায় তাপমাত্রা বন্ধ হয়ে যায় তাকে ট্রপোবিরতি বলে। এখানে তাপমাত্রা-৫৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস নিচে হতে পারে।

মন্তব্য