kalerkantho

অষ্টম শ্রেণি

বিজ্ঞান

আবু জাফর সৈকত, সহকারী শিক্ষক, হাজী সিরাজ উদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়, নারায়ণগঞ্জ

২১ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সৃজনশীল প্রশ্ন

প্রথম অধ্যায়

প্রশ্ন : দুলালি এক দিন তার নানুবাড়িতে বেড়াতে গেল। সেখানে সে একটি তেলাপোকা দেখে খুবই ভয় পেল। রাতে সে টিকটিকির শব্দ শুনতে পেল। খাবার খেতে বসে দেখল তার পাশে কয়েকটি বিড়াল ঘোরাঘুরি করছিল।

ক) নিডারিয়া পর্বের প্রাণীদের পূর্বনাম কী ছিল?

খ) পরিফেরা স্পঞ্জ নামে পরিচিত কেন?

গ) দুলালির দেখা প্রথম প্রাণীটির বৈশিষ্ট্য ব্যাখ্যা করো।

ঘ) দুলালির দেখা দ্বিতীয় ও তৃতীয় প্রাণী দুটি একই উপপর্বের হলেও একই শ্রেণিভুক্ত নয়—যুক্তি দাও।

 

সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর :

ক) নিডারিয়া পর্বের প্রাণীদের পূর্বনাম সিলেন্টারেটা।

 

খ) পরিফেরা পর্বের প্রাণীদের দেহপ্রাচীর অসংখ্য ছিদ্রযুক্ত। এদের ছিদ্রপথে পানির সঙ্গে অক্সিজেন ও খাদ্যবস্তু প্রবেশ করে। এদের দেহে কোনো পৃথক সুগঠিত কলা, অঙ্গ ও তন্ত্র থাকে না। এরা পরাশ্রয়ী হয়ে বসবাস করে। ছিদ্র থাকার কারণে পরিফেরা স্পঞ্জ নামে পরিচিত।

 

গ) দুলালির দেখা প্রথম প্রাণীটি হলো তেলাপোকা বা আরশোলা। এ প্রাণীটি প্রাণিজগতের সবচেয়ে বৃহত্তম পর্ব আর্থোপোডা পর্বের অন্তর্ভুক্ত। নিম্নে তেলাপোকার বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করা হলো।

১. তেলাপোকার দেহ বিভিন্ন অঞ্চলে বিভক্ত ও সন্ধিযুক্ত উপাঙ্গ বিদ্যমান।

২. এদের মাথায় এক জোড়া পুঞ্জাক্ষি ও অ্যান্টেনা থাকে।

৩. এদের নরম দেহ কাইটিনসমৃদ্ধ রক্ত আবরণী দ্বারা আবৃত থাকে।

 

৪. এ ছাড়া দেহে রক্তপূর্ণ গহ্বর হিমোসিল নামে পরিচিত।

 

ঘ) দুলালির দেখা দ্বিতীয় ও তৃতীয় প্রাণীটি হলো টিকটিকি ও বিড়াল। প্রাণী দুটি কর্ডাটা পর্বের ভার্টিব্রাটা উপপর্বের অন্তর্ভুক্ত হলেও টিকটিকি সরীসৃপ ও বিড়াল স্তন্যপায়ী শ্রেণিভুক্ত প্রাণী।

 

টিকটিকি ও বিড়ালের সারা জীবন পৃষ্ঠদেশ বরাবর নটোকর্ড থাকে। এদের দেহের ভেতর কঙ্কাল থাকে এবং চোখ সরল প্রকৃতির হয়। এ ছাড়া এরা ফুসফুসের সাহায্যে শ্বাসকার্য চালায়। চলনে সহায়তার জন্য এদের দুই জোড়া পা থাকে। এই বৈশিষ্ট্যাবলি কর্ডাটা পর্বের ভার্টিব্রাটা উপপর্বের প্রাণীর বৈশিষ্ট্যের সঙ্গে মিল রয়েছে।

 

আবার সরীসৃপ শ্রেণিভুক্ত প্রাণী টিকটিকির ত্বক শুষ্ক ও আঁশযুক্ত। এরা বুকের ওপর ভর দিয়ে চলাচল করে এবং এদের চার পায়ে পাঁচটি করে নখরযুক্ত আঙুল আছে। অন্যদিকে স্তন্যপায়ী শ্রেণিভুক্ত প্রাণী বিড়ালের দেহ লোমে আবৃত থাকে এবং এরা বাচ্চা প্রসব করে। এদের বাচ্চারা মাতৃদুগ্ধ পান করে বড় হয়। উষ্ণ রক্তবিশিষ্ট এ প্রাণীটির চোয়ালে বিভিন্ন ধরনের দাঁত থাকে।

সুতরাং দেখা যায়, সাধারণ বৈশিষ্ট্যের ভিত্তিতে টিকটিকি ও বিড়াল একই উপপর্বের হলেও গঠন ও শনাক্তকারী বৈশিষ্ট্যের ভিত্তিতে প্রাণী দুটি একই শ্রেণিভুক্ত নয়।

মন্তব্য