kalerkantho

জানা-অজানা

ঝাঁসির রানি লক্ষ্মীবাঈ

[অষ্টম শ্রেণির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বইয়ে ‘লক্ষ্মীবাঈ’-এর কথা উল্লেখ আছে]

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



ঝাঁসির রানি লক্ষ্মীবাঈ

ভারতের উত্তর প্রদেশের একটি জেলা ঝাঁসি। একসময় এখানকার রানি ছিলেন লক্ষ্মীবাঈ। জন্ম বারানসির কাশিতে, ১৮৩৫ সালে। তাঁর আসল নাম মণিকর্ণিকা; মনু নামেও পরিচিত ছিলেন। বয়স যখন ১৪ বছর, বিয়ে করেন পঞ্চাশোর্ধ্ব ঝাঁসির রাজা বাল গঙ্গাধর রাও নিউওয়ালকারকে। বিয়ের পর রাজা গঙ্গাধর তাঁর নাম দেন ‘লক্ষ্মীবাঈ’। ১৮৫৩ সালে রাজার মৃত্যুর পর ঝাঁসির ওপর ব্রিটিশদের নিয়ন্ত্রণ বাড়তে থাকে। রানিকে ঝাঁসি ছাড়তে বলা হয়। সেখান থেকে পালিয়ে গিয়ে ব্রিটিশবিরোধী তাতিয়া তোপের বিদ্রোহী বাহিনীর সঙ্গে যোগ দেন। রানি ও তাতিয়া তোপ একত্রে যৌথ হামলা করে গোয়ালিয়রের রাজাকে পরাজিত করেন। ১৮৫৭ সালে ভারতজুড়ে ব্রিটিশবিরোধী সিপাহি বিপ্লবের সময় লক্ষ্মীবাঈ বিক্ষুব্ধ সৈনিকদের ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে একত্র করতে থাকেন। ১৮৫৮ সালের ১৭ জুন ফুলবাগ এলাকার কাছাকাছি

কোটাহকি সেরাইয়ে রাজকীয় বাহিনীর সঙ্গে লড়াইয়ে লক্ষ্মীবাঈ নিহত হন। তাঁর ব্যাপারে ওই সময়কার ব্রিটিশ জেনারেল হিউজ রোজ অকপটে স্বীকার করেন, ‘বিদ্রোহী নেতা-নেত্রীর মধ্যে লক্ষ্মীবাঈই বেশি বিপজ্জনক ছিলেন।’

♦ গ্রন্থনা অঙ্কন : ইন্দ্রজি মণ্ডল

মন্তব্য