kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ জানুয়ারি ২০১৭ । ৪ মাঘ ১৪২৩। ১৮ রবিউস সানি ১৪৩৮।


আপনার প্রশ্ন বিশেষজ্ঞের উত্তর

অর্থোপেডিক-বিষয়ক বাছাই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠান (নিটোর), ঢাকার সহযোগী অধ্যাপক ডা. মো. ওয়াহিদুর রহমান

১৪ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



আপনার প্রশ্ন বিশেষজ্ঞের উত্তর

আমার বয়স ৪২, ওজন ৬৫ কেজি। উচ্চতা পাঁচ ফুট চার ইঞ্চি। রাতে যখন ঘুমাতে যাই, মাঝেমধ্যেই পায়ে ব্যথা অনুভব করি। কিছুদিন আগে বাসে দাঁড়িয়ে যাতায়াত করছিলাম, হঠাৎ তীব্র ব্রেক করায় আমি পড়ে যাই। হাঁটুর একটু নিচে প্রচণ্ড ব্যথা পাই। আঘাতপ্রাপ্ত স্থান অনেক ফুলে যায়। স্থানীয় ডাক্তার দেখিয়ে সাত দিনের মতো ওষুধ খাই। এতে ব্যথা কমে যায়; কিন্তু আবার কিছুদিন পর ফিরে আসে।

মারুফ হায়দার কালিহাতী, টাঙ্গাইল একজন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দেখিয়ে এক্স-রে করিয়ে নিশ্চিত হতে হবে ক্ষতিটা কোথায় হয়েছে, কতটুকু হয়েছে। হাড় ভাঙলে সে অনুযায়ী তিনি চিকিৎসা দেবেন। যদি না ভাঙে, শুধু লিগামেন্ট বা মাসল ইনজুরি হয়, সে ক্ষেত্রে চিকিৎসা একটু ভিন্ন হবে। এ ছাড়া রাতে ব্যথার যে বর্ণনা দিয়েছেন, তাতে মনে হয় আপনি প্লান্টার ফ্যাসাইটিসে আক্রান্ত। এ রোগে খালি পায়ে হাঁটা-চলা না করা ভালো। সব সময় নরম ও আরামদায়ক জুতা-স্যান্ডেল পরতে হবে। এমন জুতা-স্যান্ডেল পরা যাবে না, যা পরে হাঁটলে পায়ে ব্যথা অনুভূত হয়। এ ছাড়া ওজন কমাতে হবে।

বয়স ৩৯, ওজন ৬৮ কেজি, উচ্চতা পাঁচ ফুট এক ইঞ্চি। বাড়ির কাজকর্ম আমাকেই করতে হয়। সমস্যা হলো, মাঝেমধ্যেই হাতের কবজি ব্যথা করে। কাপড় কাচার সময় ও কাপড় চিপে পানি ঝরানোর সময় ব্যথা বেশি মনে হয়। স্থানীয় ডাক্তারের পরামর্শে এক মাসের মতো ক্যালসিয়াম ট্যাবলেট সেবন করেছি। কিন্তু এতে কোনো উপকার হয়নি।

কলি আক্তার গাইবান্ধা আপনার হাতের সমস্যাটা আসলে কী হয়েছে তা পরিষ্কারভাবে বুঝতে পারছি না। অনেক ধরনের ভারী কাজ করেন, এটা ব্যথা হওয়ার একটা বড় কারণ। সম্ভব হলে কিছুদিন পূর্ণ বিশ্রাম নিন। সাধারণত হাতের কবজিতে ব্যথা হলে আমরা ধরে নিই, কার্পাল টানেল সিনড্রোম নামের অসুখ হয়েছে। আপনার ক্ষেত্রে তা হয়েছে কি না তা বুঝতে হলে ডাক্তার দেখাতে হবে।


মন্তব্য