kalerkantho


সতর্কতা

ফল খান সাবধানে

আমাদের দেশে ফল পাকাতে, সংরক্ষণ করতে বা ফলকে আকর্ষণীয় করতে অসাধু বিক্রেতারা কিছু রাসায়নিক ব্যবহার করে থাকেন। রাসায়নিক মিশ্রিত এসব ফল খেলে নানা অসুখ-বিসুখ হয়। এ জন্য ফল চিনে খাওয়া উচিত। পরামর্শ দিয়েছেন দ্য লিভার সেন্টার ঢাকার পরিচালক অধ্যাপক ডা. মবিন খান

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



আমাদের দেশে শিল্প-কলকারখানায় ব্যবহৃত হওয়া ক্যালসিয়াম কার্বাইড নামের বিষাক্ত রাসায়নিক দিয়ে পাকানো হয় ফল। এ ছাড়া মেশানো হয় নানা বিষাক্ত রাসায়নিক ও ফরমালিন। অথচ এসব ক্যালসিয়াম কার্বাইড, ফরমালিন মেশানো ফলমূল মানবদেহে অনেক ধরনের প্রতিক্রিয়া তৈরি করে। যেমন—

►    চোখ ও চামড়ার সংস্পর্শে এলে জ্বালাপোড়া, চোখে অন্ধত্ব ও চামড়ায় ঘা সৃষ্টি করতে পারে।

►    শ্বাস-প্রশ্বাসের মাধ্যমে ফুসফুসে গেলে গলা ব্যথা, কাশি ও শ্বাসকষ্ট হতে পারে।

►    খাবারের মাধ্যমে পেটে গেলে মুখ ও পাকস্থলীতে ঘা হতে পারে।

►    অতিমাত্রায় গ্রহণ করলে ফুসফুসে পানি জমে যেতে পারে।

►    দীর্ঘস্থায়ী কফ, কাশি ও অ্যাজমা হতে পারে।

 

চেনার উপায়

►    কেমিক্যালযুক্ত ফল কাটার পর ফলের চামড়ার ঠিক নিচে ফলের অংশ কাঁচা পাওয়া যায়, বিশেষ করে আমের ক্ষেত্রে, যদিও ফলটি পাকা রং ধারণ করেছিল।

►    যদি ঝুড়িতে বা দোকানে সব ফল একই সময়ে একই রকম পাকা দেখা যায় এবং দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে ফলের চামড়ায় আঁচিল বা তিলের মতো রং দেখা যায়।

►    প্রাকৃতিক প্রক্রিয়ায় যে ফল পাকে তাতে মাছি বসে; কিন্তু কেমিক্যাল দিয়ে পাকানো হলে সে ফলে মাছি সাধারণত বসে না।

►    প্রাকৃতিকভাবে পাকা ফলের চামড়া ওঠানোর পর এক ফোঁটা আয়োডিন দিলে তা গাঢ় নীল অথবা কালো বর্ণ ধারণ করে। কিন্তু কেমিক্যাল দিয়ে পাকানো ফলে এ আয়োডিনের রং অপরিবর্তিত থাকে।

 

     করণীয়

►    মৌসুম শুরু হওয়ার আগে বাজারে আসা ফল যতটা সম্ভব না কেনাই উচিত। আবার মৌসুম শেষেও বেশিদিন সংরক্ষণে রাসায়নিক প্রয়োগ হতে পারে বলে ওই সময়টায় সতর্ক থাকা উচিত।

►    ফল খাওয়ার আগে সম্ভব হলে গরম পানি দিয়ে ভালো করে ফল ও  হাত ধুয়ে নিন।

►    পানিতে একটু ভিনেগার মিশিয়ে তাতে কয়েক মিনিট ফল ডুবিয়ে রাখলে ফরমালিনের প্রভাব কমে যাবে।

►    যাঁরা প্রাকৃতিকভাবে আম বা এ ধরনের ফল সংরক্ষণ করতে চান, তাঁরা হালকা গরম পানিতে ফলগুলো কিছু সময় ভিজিয়ে রাখুন। এরপর ভালো করে মুছে পাত্রে বা প্যাকেটে সংরক্ষণ করুন। দেখবেন এমনিতেই ফলগুলো বহুদিন ভালো থাকছে।

 

 



মন্তব্য