kalerkantho

সুশাসন ও দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণের আহ্বান সনাক ও টিআইবির

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)   

২৪ মার্চ, ২০১৯ ১৭:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সুশাসন ও দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণের আহ্বান সনাক ও টিআইবির

সকলের জন্য সুপেয় পানির প্রাপ্যতা নিশ্চিতে পানি খাতে সুশাসন ও দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণের দাবি জানিয়েছে টিআইবির অনুপ্রেরণায় গঠিত সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক), সাভার।

জাতিসংঘ কর্তৃক প্রণীত ২০১৬-২০৩০ মেয়াদী টেকসই উন্নয়ন অভীষ্টের মূল প্রত্যয় ‘কাউকে পিছিয়ে রেখে উন্নয়ন নয়’ এর অভিযোজিত রূপ ‘কাউকে পেছনে রাখা যাবে না’ প্রতিপাদ্য কে সামনে রেখে ২২ মার্চ বিশ্ব পানি দিবস-২০১৯ উপলক্ষে আজ রবিবার সকালে উপজেলার গেন্ডা বাস স্ট্যান্ডে অনুষ্ঠিত এক মানববন্ধনে এ দাবি উত্থাপন করে সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) সাভার।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, সনাক সভাপতি অধ্যাপক দীপক কুমার রায়, সহ সভাপতি প্রকৌশলী আব্দুল খালেক, সদস্য সোমেন্দ্রলাল আচার্য্য ও আখম সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, পানি সম্পদ ব্যবস্থাপনায় দুর্নীতি বাংলাদেশের পানিখাতে সমস্যার অন্যতম প্রধান কারণ। বাংলাদেশের প্রাকৃতিক জলাধারের প্রায় ৭০ ভাগ অবৈধভাবে দখলকৃত। পানির উৎস সমূহের অবৈধ দখল, ক্ষমতার অপব্যবহার করে পানি দূষণ, নিম্ন মানের অবকাঠামো সৃষ্টি, অবৈধ সংযোগ স্থাপন, অপ্রাতিষ্ঠানিক বা অবৈধ পানি সরবরাহ ব্যবস্থা, পানি খাত সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানসমূহে দুর্নীতি ও অনিয়ম ইত্যাদি কারণে দরিদ্র ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠী সহজলভ্য ও নিরাপদ পানি প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হয়।

এ ছাড়া দূষিত পানি ব্যবহার করে ৬১ পয়েন্ট ৭ ভাগ মানুষ। প্রতি বছর বাংলাদেশের প্রায় ৭০ মিলিয়ন মানুষ নিরাপদ পানির অভাবে বিভিন্ন ধরণের পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়, এমনকি মৃত্যুও ঘটে। এখনো পৃথিবীর মধ্যে বাংলাদেশেই সবচেয়ে বেশি সংখ্যক মানুষ আর্সেনিক আক্রান্ত পানি পান ও ব্যবহার করে।

বক্তরা স্থানীয় ও জাতীয় উভয় পর্যায়েই পানিসম্পদ খাতে সুশাসনের বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ তুলে ধরে সকলের জন্য সুপেয় পানির প্রাপ্যতা নিশ্চিতে পানি খাতে সুশাসন ও দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণের দাবি জানান। টিআইবি’র কর্মীবৃন্দ, ইয়েস ও ইয়েস ফ্রেন্ডস্ সদস্যবৃন্দ মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন। 

মন্তব্য