kalerkantho

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অভিমুখে হকারদের মিছিলে পুলিশি বাধা

গ্রেফতার-নির্যাতন বন্ধের দাবিতে স্মারকলিপি পেশ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ মার্চ, ২০১৯ ১৮:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অভিমুখে হকারদের মিছিলে পুলিশি বাধা

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অভিমুখে পূর্ব ঘোষিত বাংলাদেশ হকার্স ইউনিয়নের মিছিলে বাঁধা দিয়েছে পুলিশ। পুলিশী বাঁধার মুখে সেখানে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে হকাররা। সমাবেশ শেষে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীকে দেওয়া এক স্মারকলিপিতে হকারদের গ্রেফতার ও নির্যাতন বন্ধের দাবি জানানো হয়েছে। এছাড়া হকার উচ্ছেদের আগে পূনর্বাসন নিশ্চিত করার আহ্বান জানানো হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর গুলিস্তান থেকে বিক্ষুব্ধ হকাররা একটি মিছিল বের করে। মিছিলটি জাতীয় প্রেসক্লাব হয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অভিমুখে যাওয়ার পথে নগরীর পুরানা পল্টন মোড়ে পুলিশি কাটাতারের ব্যারিকেডের মুখে পড়ে। তারা ব্যারিকেড ভাঙ্গার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। পরে সেখানেই সমাবেশে মিলিত হয়। সমাবেশ থেকে প্রতিনিধি দল সচিবালয়ে গিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীকে স্মারকলিপি দেয়। প্রতিনিধি দলে ছিলেন সমাবেশ থেকে সংগঠনের সভাপতি আব্দুল হাশেম কবির, কার্যকরী সভাপতি মুর্শিকুল ইসলাম শিমুল, সহ-সভাপতি আবুল কালাম, মো. শহীদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জসিম, কেন্দ্রীয় নেতা মিজানুর রহমান ও শহীদ মিয়া।

এরআগে সমাবেশে আব্দুল হাশেম কবির বলেন, জীবিকার সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ হচ্ছে রাষ্ট্র। আর জীবিকার অধিকার কেড়ে নেওয়া মানবতাবিরোধী অপরাধ। অথচ সরকার বারবার হকারদের রুটি-রুজির অধিকার হরণ করেছে। গত দুই মাস ধরে কয়েক লক্ষ হকার পরিবারে নিরব দুর্ভিক্ষ চলছে। অবস্থা দেখে মনে হয় হকাররা এই দেশের নারগরিক নয়। তিনি আরো বলেন, যারা অবাধ ও মুক্ত ফুটপাত চান তাদের সাথে আমাদের কোন বিরোধ নেই। সচেতন নাগরিকদের প্রতি আমাদের আকুল আবেদন থাকবে বিগত সময়ে হকার পুনর্বাসনের নামে যে সকল প্রকল্প হয়েছে, সেই সকল প্রকল্পের বাস্তব অবস্থা এবং চরম দুর্নীতি ও লুটপাটের বিরুদ্ধে সকলেই সোচ্চার হবেন।

বিক্ষোভ সমাবেশে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি পাঠ করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সেকেন্দার হায়াৎ। স্মারকলিপিতে বলা হয়, হকারদের বিরুদ্ধে চলমান গ্রেফতার ও মামলা বাণিজ্য, হয়রানি-নির্যাতন অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে। এছাড়াও পুনর্বাসনের ব্যবস্থা না হওয়া পর্যন্ত দুপুর ১২টা থেকে ফুটপাতে জনচলাচলে বিঘœ না ঘটিয়ে হকারদের পণ্য বিক্রির সুযোগ দিতে হবে। স্মারকলিপি পাঠ করার পর উপস্থিত কয়েক হাজার হকার হাত তুলে দাবির প্রতি সমর্থন জ্ঞাপন করেন।

মন্তব্য