kalerkantho

ব্রয়লার মুরগির দাম লাগামহীন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ মার্চ, ২০১৯ ১২:৩৩ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ব্রয়লার মুরগির দাম লাগামহীন

ব্রয়লার মুরগির দাম লাগামহীন। ঢাকার বিভিন্ন খুচরা বাজারে প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৬০-১৭০ টাকায়। রাষ্ট্রায়ত্ত বিপণন সংস্থা টিসিবির বাজার বিশ্লেষণের তথ্য থেকে জানা গেছে, মাসখানেক আগে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হয়েছে ১৫০-১৫৫ টাকা কেজিতে। এক মাসের ব্যবধানে প্রতি কেজিতে দাম বেড়েছে ১৫ থেকে ২০ টাকা।

দুই মাস ধরে বাড়তে থাকে ব্রয়লার মুরগির দাম। ১৩০ থেকে ১৩৫ টাকায় বিক্রি হওয়া ব্রয়লার মুরগির দাম প্রথম দফায় কেজিতে বাড়ে ১০ টাকা পর্যন্ত। পরের ধাপে বাড়ে আরো ১০ টাকা। চলতি সপ্তাহে এসে বাড়ল ১৫ থেকে ২০ টাকা। অর্থাৎ গত দুই মাসে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে বেড়েছে ৩৫ থেকে ৪০ টাকা পর্যন্ত।

সেগুনবাগিচা কাঁচাবাজারের মুরগি বিক্রেতা আমিনুর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমাদের বেশি রেট দিয়ে কিনতে হয়; কিন্তু কেন এত দাম বাড়ল তা বলতে পারব না।’

ব্রয়লার মুরগির এই দাম বাড়ায় বিপাকে পড়েছে ভোক্তারা। তারা বলছে, দাম একবার বাড়তে শুরু করলে বাড়তেই থাকে শুধু। বর্তমানে মুরগির দামও বাড়ছে। ডিমের দামও বাড়ছে।

রামপুরা বাজারে গতকাল শুক্রবার সকালে বাজার করতে আসা ক্রেতা আল-আমিন বলেন, ‘গরুর মাংসের তো অনেক দাম। দেশি মুরগির দামও চড়া। বিকল্প মাংসের উৎস হলো ব্রয়লার মুরগি। এটাও যদি ১৭০ টাকায় কেনা লাগে তবে আমাদের কষ্টটা বেড়ে যায়।’

৪৮০ থেকে ৫০০ টাকা কেজিতে পাওয়া যেত গরুর মাংস। বর্তমানে গরুর মাংসের দামও চড়া। প্রতি কেজি গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে বাজারভেদে ৫২০ থেকে ৫৫০ টাকায়। আর খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে কেজি ৭২০-৭৫০ টাকা।

অন্যদিকে শীত মৌসুম বিদায় নেওয়ার পর থেকেই চড়া সবজির বাজার। সবজি বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বাজারে আসা নতুন সবজি যেমন বরবটি, পটোল, কচুর লতি বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকা কেজি। করলা ৮০ থেকে ৯০ টাকা কেজি। ঢেঁড়স ৮০ থেকে ৯০ টাকা কেজি।

শিম, বেগুন, ফুলকপি, বাঁধাকপির দাম বর্তমানে ৪০ টাকার কাছাকাছি। বাজারভেদে ৪০ টাকার বেশি দিয়েও কিনতে হচ্ছে।

কম দামের মধ্যে রয়েছে শুধু আলু। প্রতি কেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ১৫ থেকে ২৫ টাকা দরে। তবে দাম কমেছে দেশি পেঁয়াজের। প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ ২০ থেকে ২৫ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। যা দিন দশেক আগে বিক্রি হতো ৩০ টাকা কেজিতে। আমদানি করা পেঁয়াজও একই দামে বিক্রি হচ্ছে।

মন্তব্য