kalerkantho

পরিচ্ছন্ন নগর গড়তে কাউন্সিলরদের সহযোগিতা চাইলেন আতিকুল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ মার্চ, ২০১৯ ২০:৪৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পরিচ্ছন্ন নগর গড়তে কাউন্সিলরদের সহযোগিতা চাইলেন আতিকুল

জলাবদ্ধতা নিরসন, ফুটপাত দখলমুক্ত, মশা নিয়ন্ত্রণ এবং প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক পরিচ্ছন্ন নগর গড়তে কাউন্সিলরদের সহযোগিতা চাইলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। একই সঙ্গে জনপ্রত্যাশা পূরণে এলাকাবাসীকে নিয়ে কাজ করে ঢাকাকে অধিকতর বাসযোগ্য করার পরামর্শও দেন তিনি। 

আজ বৃহস্পতিবার ডিএনসিসির নগর ভবনে কাউন্সিলরদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এসব প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন আতিকুল ইসলাম। 

নবনির্বাচিত কাউন্সিলরদের শপথ অনুষ্ঠানের পর প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা স্মরণ করিয়ে দিয়ে মেয়র বলেন, ‘আমরা একটি সুন্দর, পরিচ্ছন্ন ঢাকা শহর গড়তে এসেছি। কাউন্সিলর ও মেয়রের প্রতি জনগণের প্রত্যাশাও অনেক। জনগণের প্রত্যাশা পূরণে জন্য কাজ করতে হবে সবার।’

মতবিনিময় সভায় ডিএনসিসির নতুন সংযুক্ত ওয়ার্ডগুলোর নাগরিক সুবিধা পর্যায়ক্রমে পুরাতন ওয়ার্ডগুলোর পর্যায়ে নেওয়ার প্রয়োজনীয়তা উল্লেখ করেন আতিকুল ইসলাম। একই সঙ্গে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, মশা, জলাবদ্ধতা, ফুটপাত দখলসহ কাউন্সিলরদের নিজ নিজ এলাকার সমস্যার বিষয়ে মেয়রকে অবহিত করা হয়। নাগরিক সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সকল কাউন্সিলর মেয়রের নেতৃত্বে কাজ করার প্রতিশ্র“তিও দেন। 

ডিএনসিসির প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর জামাল মোস্তফা বলেন, ‘মেয়রের নেতৃত্বে আমরা সবাই মিলে ঢাকাকে সুন্দর করবো। নগরবাসীর সেবার মান বৃদ্ধি করতে আমাদের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।’

জলাবদ্ধতা এবং মশক নিয়ন্ত্রণে কাজ ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে মন্তব্য করে আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘জলাবদ্ধতা নিরসনে ইতোমধ্যে বিভিন্ন জায়গা পরিদর্শন করেছি। ওয়াসাকে সঙ্গে নিয়ে বর্ষার আগেই জলাবদ্ধতা সমস্যার সমাধান করা হবে। ফুটপাত উদ্ধারে পুলিশের সঙ্গেও কথা হয়েছে। এছাড়া মশক নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে আজ শুক্রবার মশক কর্মীদের উদ্বুদ্ধ করতে সভার করা হবে।’ 

মতবিনিময় ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল হাই, সচিব রবীন্দ্রশ্রী বড়–য়া, প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল যুবায়ের সালেহীন, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জাকির হাসান, জনসংযোগ কর্মকর্তা এএসএম মামুন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য