kalerkantho


জালনোট শনাক্তে গাবতলীর হাটে ৩৫ মেশিন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ আগস্ট, ২০১৮ ১২:০৫



জালনোট শনাক্তে গাবতলীর হাটে ৩৫ মেশিন

কোরবানি উপলক্ষে রাজধানীর বৃহৎ গাবতলী পশুরহাটে ৩৫টি জালনোট শনাক্তকরণ মেশিন বসানো হয়েছে। ব্যাংকনোট ও জালনোটের মধ্যে পার্থক্য শনাক্তে এসব মেশিনগুলো বসানো হয়েছে। ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষের হাতে ভুলে জালনোট চলে এলে তাতে ক্ষতির সম্মুখীন হন তারা।

অনেকক্ষেত্রে আইনগত জটিলতায়ও পড়তে হয় এসব বিষয় মাথায় রেখেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। হাট ইজারাদার, ব্যাংক, পুলিশ ও র‌্যাবের পক্ষ থেকে এসব মেশিন বসানো হয়েছে। গাবতলীতে কোরবানির পশু কিনতে এসে কেউ যেন প্রতারণার শিকার না হন সেজন্য এ ব্যবস্থা। এসব মেশিনে রাত-দিন ২৪ ঘণ্টাই সেবা পাওয়া যাচ্ছে।

হাট পরিচালনা কমিটির সদস্য সানোয়ার হোসেন বলেন, জাল টাকা শনাক্তে ৩৫টি মেশিন বসানো হয়েছে। হাটের নিরাপত্তায় ৭০০ থেকে ৮০০ কর্মী কাজ করছেন। বসানো হয়েছে ওয়াচ টাওয়ারও। হাটে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট সিসি ক্যামেরাসহ চারপাশে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা দায়িত্ব পালন করছেন। প্রায় ৭০০ থেকে ৮০০ সদস্য আইন-শৃঙ্খলার কাজে নিয়োজিত রয়েছেন। এর বাইরে ৩৩ জন সিভিল পোশাকে হাটে টহল দিচ্ছেন।

 



মন্তব্য