kalerkantho


সিপিবি-বাসদ ও বাম গণতান্ত্রিক মোর্চার সমাবেশ

আইনের মাধ্যমে ব্যাংকখাত লুটের দ্বার উন্মুক্ত হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:৫১



আইনের মাধ্যমে ব্যাংকখাত লুটের দ্বার উন্মুক্ত হয়েছে

ব্যাংক কম্পানি আইনের সংশোধনী পাশের মাধ্যমে বাস্তবে আইনের আওতায় ব্যাংকখাত লুটের দ্বার উন্মুক্ত করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন বাম রাজনৈতিক দলগুলোর নেতারা। গতকাল বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে  সিপিবি-বাসদ ও বাম গণতান্ত্রিক মোর্চা নিয়ে গঠিত বাম রাজনৈতিক দলগুলোর নেতারা বিক্ষোভপূর্ব সমাবেশে এ কথা বলেন। নতুন এ রাজনৈতিক জোটের উদ্যোগে ব্যাংক কম্পানি সংশোধনী আইন বাতিলের দাবিতে এ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

নেতৃবৃন্দ বলেন, গত ১৬ জানুয়ারি জাতীয় সংসদে ব্যাংক কম্পানি সংশোধন আইন পাশ করা হয়েছে, এ আইনে পরিচালক পদের মেয়াদ ৬ বছর থেকে বাড়িয়ে ৯ বছর করা হয়েছে। একই সঙ্গে দুইজনের বদলে নতুন আইনে একই পরিবারের চারজন সদস্য পরিচালক পদে থাকতে পারবেন। নেতারা বলেন, এ আইনের মাধ্যমে মূলত ব্যাংকখাতে পরিবারতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। নেতারা দ্রুত এই আইন বাতিলের দাবি করেন।

বিপ্লবী ওয়াকার্স পাটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড সাইফুল হক বলেন, দেশের বেসরকারি ব্যাংকগুলোতে বর্তমানে জনগণের ৭ লাখ কোটি টাকা আমানত রয়েছে। এ ছাড়াও ব্যাংকগুলোকে সরকার ১৬ হাজার কোটি জনগণের টাকা তাদের মূলধন হিসেবে দিয়েছে। ব্যাংকখাতে পরিবারতন্ত্র প্রতিষ্ঠার কারণে জনগণের এ টাকা আরো অনিরাপদ ও লুটপাটের ঝুঁকিতে পড়ল।

সিপিবির যুগ্ম সম্পাদক সাজ্জাদ জহির চন্দনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন মানস নন্দী, তাসলিমা আখতার, জুলফিকর আলী, আবদুল্লাহ আল ক্কাফি রতন প্রমুখ। সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল প্রেস ক্লাব থেকে গুলিস্তান হয়ে পল্টন মোড়ে গিয়ে শেষ হয়।



মন্তব্য