kalerkantho


বাংলাদেশ গ্রন্থাগার সমিতি নির্বাচন

আকবর-আনোয়ার-তুষার প্যানেল নির্বাচিত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৬:৫৯



আকবর-আনোয়ার-তুষার প্যানেল নির্বাচিত

বাংলাদেশে গ্রন্থাগার পেশাজীবীদের জাতীয় সংগঠন বাংলাদেশ গ্রন্থাগার সমিতির এবারের নির্বাচনে আকবর-আনোয়ার-তুষার প্যানেলের নিরঙ্কুশ জয় হয়েছে। আকবর -আনোয়ার -তুষার প্যানেলের মোট ১১ জন ( সহ সভাপতি ২ জন এবং কেন্দ্রীয় কাউন্সিলর ২ জন ব্যতীত) কেন্দ্রীয় কমিটিতে এবং বিভাগীয় কাউন্সিলরের ৪টি (ঢাকা, রাজশাহী, খুলনা, ময়মনসিংহ) সহ ২৩টি পদের মধ্যে ১৫টি পদেই এই প্যানেলের নেতৃবৃন্দ জয়লাভ করেন।

বাংলাদেশ গ্রন্থাগার সমিতির ২০১৮-২০২০ কর্মকালের জন্য যারা নির্বাচিত হয়েছেন তারা হলেন- সভাপতি সৈয়দ আলী আকবর(ডেপুটি লাইব্রেরিয়ান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়), সহ সভাপতি(১) এ ডি এম আলী আহাম্মদ(লাইব্রেরিয়ান, গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তর, ঢাকা), সহ সভাপতি(২) ড. মোঃ মিজানুর রহমান(লাইব্রেরিয়ান, ব্যানবেইজ, ঢাকা - মিতুল-লিটন-মহিউদ্দিন প্যানেল), সহ সভাপতি(৩) কাজী আব্দুল মাজেদ( ইলিশ, ঢাকা - মিতুল-লিটন-মহিউদ্দিন প্যানেলের পরিচালক), মহাসচিব ড. মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম( শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের লাইব্রেরিয়ান), কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ হামিদুর রহমান (তুষার)(সহকারি পরিচালক, গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তর, ঢাকা), যুগ্ম মহাসচিব মোঃ সামসুল ইসলাম(প্রিন্সিপাল লাইব্রেরিয়ান বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন, ঢাকা এবং জনপ্রিয় ক্রীড়া ভাষ্যকার), সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ হারুনর রশিদ, (গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তর, ঢাকার সহকারি লাইব্রেরিয়ান), গবেষণা ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ এমদাদুল হক( ডেপুটি লাইব্রেরিয়ান, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়), মহিলা বিষয়ক সম্পাদক তানজেবা রায়হান সোমা( ডেপুটি লাইব্রেরিয়ান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়)। 

এ ছাড়াও কেন্দ্রীয় কাউন্সিলর (১) সৈয়দা ফরিদা পারভীন(লাইব্রেরিয়ান (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়) কেন্দ্রীয় কাউন্সিলর (২) প্রফেসর ড. এম. নাসির উদ্দিন মুন্সী(অধ্যাপক, আইএসএলএম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় - মিতুল-লিটন-মহিউদ্দিন প্যানেল), কেন্দ্রীয় কাউন্সিলর (৩)  মো: আক্কাছ উদ্দিন পাঠান(লাইব্রেরিয়ান, কুয়েট)।

তাছাড়াও কেন্দ্রীয় কাউন্সিলর (৪) শ্যামা প্রসাদ বেপারী(যুগ্ম সচিব, শিক্ষা মন্ত্রণালয়, ঢাকা),
কেন্দ্রীয় কাউন্সিলর (৫) কাজী এমদাদ( সহকারি লাইব্রেরিয়ান, বুয়েট ও ঢাকা - মিতুল-লিটন-মহিউদ্দিন প্যানেল),
কাউন্সিলর (ঢাকা) আবু মো: হান্নান মিয়া, তিনি লাইব্রেরিয়ান, আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, ঢাকা।
কাউন্সিলর (চট্টগ্রাম) মুহাম্মদ আনোয়ার হোছাইন, তিনি সিনিয়র সহকারি পরিচালক, আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ব.চট্রগ্রাম।
কাউন্সিলর (খুলনা) অনাদী কুমার সাহা, তিনি লাইব্রেরিয়ান, সরকারি সিটি কলেজ, যশোর।
কাউন্সিলর (রাজশাহী) - মো: মাহবুবুল আলম, তিনি এডিশনাল লাইব্রেরিয়ান, রুয়েট, রাজশাহী।
কাউন্সিলর (সিলেট) - মো: কাওার আহমদ, তিনি সহকারি গ্রন্থাগারিক, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ব. সিলেট।
কাউন্সিলর (রংপুর) - মো: ফেরদৌস জামান, তিনি লাইব্রেরিয়ান কাউনিয়া কলেজ, রংপুর।
কাউন্সিলর (ময়মনসিংহ) - আবুল হাসনাত মো: জামান, তিনি সহকারি অধ্যাপক, ফুলবাড়িয়া ডিগ্রী কলেজ, ময়মনসিংহ।
কাউন্সিলর (বরিশাল) - মো: মাহবুবুল আলম, অধ্যক্ষ, ইলিশ, বরিশাল।

নির্বাচনের ফলাফলে খুশি হয়ে আকবর-আনোয়ার-তুষার প্যানেলের সভাপতি সৈয়দ আলী আকবর বলেন, দেশের সকল সদস্যদের ভোটে আমরা বিপুল ভোটে জয়ী হওয়ায় আমার প্যানেলের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।  

বাংলাদেশে গ্রন্থাগার পেশাজীবীদের জাতীয় সংগঠন বাংলাদেশ গ্রন্থাগার সমিতির ত্রিবার্ষিক নির্বাচন গত ৩০ ডিসেম্বর দেশব্যাপী ৮টি বিভাগীয় শহরে পৃথক ৮টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয়। সংশ্লিষ্ট বিভাগের বিভিন্ন জেলা/উপজেলা থেকে সদস্যগণ দারুন উৎসাহ নিয়ে ভোট দিতে আসেন। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত এ ভোট গ্রহণ চলে। ভোট গ্রহণ শেষে সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রগুলোতে প্রাপ্ত ভোট গনণা শুরু হয়। রাত ৯টা অব্দি ভোট গণনা চলে। এরই মধ্যে ঢাকায় টিচার্স ট্রেনিং কলেজে অবস্থিত প্রধান নির্বাচন কমিশনারের কার্যালয়ে দেশের বিভিন্ন বিভাগ থেকে একের পর এক ফলাফল আসতে থাকে। প্রায় ৩৯০০ জন জীবন সদস্য/ভোটারের মধ্যে এবারের নির্বাচনে ২১২১ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন বলে জানা যায়। নির্বাচনে আকবর-আনোয়ার-তুষার এবং মিতুল-লিটন-মহিউদ্দিন নামে দুটি প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে।
 
নবনির্বাচিত নেতৃবৃন্দ ল্যাবের বিরাজমান অচলাবস্থা দুর করে কর্মকাণ্ডে গতিশীলতা আনবেন এবং পেশাজীবীদের বিরাজমান সমস্যাগুলো সমাধানে বাস্তবসম্মত পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন বলে মনে করেন ল্যাব সদস্যগণ।

 


মন্তব্য