kalerkantho

বালুঘাট ও কেরানীগঞ্জে হেলে পড়েছে দুই ভবন

নিজস্ব প্রতিবেদক ও কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি   

২৫ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানীর ক্যান্টনমেন্টের বালুঘাট এলাকায় ছয়তলা একটি ভবন পাশের নির্মাণাধীন আটতলা ভবনের ওপর হেলে পড়েছে। গতকাল রবিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। এতে কেউ হতাহত হয়নি। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা জানিয়েছেন, ভবনের বাসিন্দাদের নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা রাতে বাড়ি দুটি ঘিরে রেখে লোকজনকে নিরাপদ দূরত্বে রেখেছেন। রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের প্রতিনিধিও সেখানে গেছেন।

এদিকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার কালীগঞ্জ শান্তপাড়া এলাকায় আরেকটি পাঁচতলা ভবন হেলে পড়ার ঘটনা ঘটেছে। ভবনটির মালিকের নাম মো. শহিদুল্লাহ। শনিবার সন্ধ্যার পর ভবনটি হেলে পড়ার ঘটনা এলাকাবাসীর নজরে পড়ে। খবর পেয়ে গতকাল বিকেল ৫টায় নির্বাহী অফিসার শাহে এলিদ মাইনুল আমিন ঘটনাস্থলে এসে ভবনে বসবাস করা ১০টি পরিবারকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেন এবং ভবনটি ভেঙে ফেলার জন্য সিলগালা করে দেন।

গত রাতে কুর্মিটোলা ফায়ার স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার বজলুর রশিদ বলেন, “বালুঘাট এলাকায় খবির মার্কেটের পেছনে ‘প্রতীক্ষা’ নামের একটি ভবন উত্তর দিকের আরেকটি আটতলা নির্মাণাধীন ভবনের দিকে হেলে পড়ে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে খবরটি পাওয়া যায়। আমরা লোকজনকে হ্যান্ডমাইক দিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে আসার অনুরোধ করি।” তিনি আরো জানান, ভবনটির ঠিকানা ৪৭/৫ বালুঘাট, ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট। ভবনটি এখন যে পর্যায়ে আছে, তাতে হতাহতের কোনো আশঙ্কা নেই। এর পরও সেখানে লোকজনকে যেতে দেওয়া হচ্ছে না। কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এদিকে কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহে এলিদ মাইনুল আমিন জানান, কালীগঞ্জ এলাকায় তিনতলা ফাউন্ডেশনের ওপর পাঁচতলা ভবন তৈরি করেন মালিক শহিদুল্লাহ। দুই দিন ধরে ভবনটি পশ্চিম পাশে হেলে পড়ায় রবিবার বাড়ির মালিকসহ ১০টি পরিবারকে সরিয়ে ভবনটি সিলগালা করা হয়। বাড়িটি দ্রুত ভেঙে ফেলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

 

মন্তব্য