kalerkantho


শিশুদের উন্নয়নে শিশু অধিদপ্তর হচ্ছে

মেহের আফরোজ চুমকি, প্রতিমন্ত্রী, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



শিশুদের উন্নয়নে শিশু অধিদপ্তর হচ্ছে

সবার আগে জরুরি পথশিশুদের মূল স্রোতে আনা। তাদের দক্ষ জনবল হিসেবে গড়ে তোলার জন্য প্রশিক্ষণ, উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা, উন্মুক্ত স্কুলসহ শারীরিক-মানসিক বিকাশের জন্য বিভিন্ন বিনোদনমূলক কার্যক্রমে সম্পৃক্ত করা হচ্ছে। পথশিশুদের দক্ষ জনবল হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে মেয়েশিশুদের জন্য আজিমপুর কেন্দ্র এবং ছেলেশিশুদের জন্য কেরানীগঞ্জ ও গাজীপুরসহ ছয়টি শিশু বিকাশকেন্দ্র শিশু অ্যাকাডেমির মাধ্যমে পরিচালিত হচ্ছে। এসব কেন্দ্রে শিশুদের খাদ্য, চিকিৎসা, প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা রয়েছে। পথশিশুদের শিক্ষাসহায়তা দেওয়ার পাশাপাশি তাদের পুনর্বাসনের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। শিশুদের অধিকার রক্ষায় বিভিন্ন কাজ চলছে। নতুন করে আরো উদ্যোগ নেওয়া হবে। সরকারের দূরদর্শিতা ও সময়োপযোগী সিদ্ধান্তের কারণে শিশু শিক্ষার হার বেড়েছে। শিশু মৃত্যুর হার কমেছে। শিশুদের উন্নয়নে শিশু বাজেট প্রণয়ন করা হয়েছে। শিশুদের যুগোপযোগী আধুনিক শিক্ষায় গড়ে তুলতে সরকার কাজ করছে। সে লক্ষ্য বাস্তবায়নে শিশু অধিদপ্তর করার চিন্তা-ভাবনা চলছে। ২০১৪ সালে নারী ও শিশুবিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটি শিশু অধিদপ্তরের প্রস্তাব জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পাঠায়। অধিদপ্তর গঠনের কাজ অনেকদূর এগিয়েছে। আশা করি অচিরেই শিশু অধিদপ্তর করা সম্ভব হবে। শিশু অধিদপ্তর হলে পথশিশুদের জন্য আলাদাভাবে একাধিক প্রকল্প-কর্মসূচি নেওয়া সম্ভব হবে।



মন্তব্য