kalerkantho

ইমরান খানকে মোদির শুভেচ্ছা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৪ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইমরান খানকে মোদির শুভেচ্ছা

পাকিস্তানের জাতীয় দিবস উপলক্ষে দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কয়েক সপ্তাহ ধরে দুই দেশের সম্পর্কে তীব্র টানাপড়েন চলছে। এর মধ্যেই শুভেচ্ছা জানালেন মোদি।

টুইটে মোদি বলেন, সন্ত্রাস ও সহিংসতামুক্ত পরিবেশে শান্তিপূর্ণ ও উন্নয়নশীল অঞ্চল গড়তে উপমহাদেশের জনগণের এখন একসঙ্গে কাজ করার সময়। ইমরান খান মোদিকে পাল্টা টুইটে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ভারতের সঙ্গে সমন্বিত আলোচনা শুরুর এটিই সময়। জনগণের শান্তি ও সমৃদ্ধির জন্য ভারত ও পাকিস্তানের নতুন সম্পর্কে আবদ্ধ হওয়া প্রয়োজন।

প্রতিবছর ২৩ মার্চ পাকিস্তানে জাতীয় দিবস উদ্যাপিত হয়। ১৯৪০ সালের ২৩ মার্চ লাহোর প্রস্তাব পাস হয়েছিল। ইসলামাবাদে গতকাল শনিবার পাকিস্তানের জাতীয় দিবসে নানা কর্মসূচি পালন করা হয়। নয়াদিল্লিতে পাকিস্তান হাইকমিশনে গত শুক্রবারই বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তবে ভারত কোনো প্রতিনিধি পাঠায়নি। কারণ এসব অনুষ্ঠানে জম্মু ও কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদীদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রভীশ কুমার বলেন, পাকিস্তান হাইকমিশন হুরিয়াত নেতাকে সংবর্ধনায় আমন্ত্রণ জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর পরই ভারত ঠিক করেছে, তারা কোনো প্রতিনিধি পাঠাবে না। রভীশ কুমার বলেন, ‘গত মাসেই আমরা সাফ জানিয়েছি, হুরিয়াত নেতাদের সঙ্গে পাকিস্তান হাইকমিশন অথবা পাকিস্তানের নেতাদের কোনো যোগাযোগ হালকাভাবে নেওয়া হবে না।’

এর আগের বছরগুলোয় পাকিস্তানের হাইকমিশনে ভারত মন্ত্রী পাঠিয়েছে। বিচ্ছিন্নতাবাদীদের আমন্ত্রণ জানানো সত্ত্বেও প্রতিবছরই ভারত মন্ত্রী পাঠিয়ে থাকে।

জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামা এলাকায় গত মাসে সন্ত্রাসী হামলার পর থেকেই ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে উত্তেজনা বেড়েছে। ওই হামলায় সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের ৪০ সেনা নিহত হন। মাসুদ আজহারের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তানভিত্তিক সন্ত্রাসী দল জইশ-ই-মোহাম্মদ এই হামলার দায় নিয়েছে।

এ ঘটনার পর পাকিস্তানের বালাকোট এলাকায় জইশ-ই-মোহাম্মদের প্রশিক্ষণশিবিরে বিমান হামলা চালায় ভারত। সে সময় ভারত দাবি করে, এগুলো বেসামরিক বিমান। পাকিস্তান এক দিন পরেই ভারতের সামরিক স্থাপনাগুলো লক্ষ্য করে হামলা চালায়। ১৯৭১ সালের পর এই প্রথমবারের মতো ভারত ও পাকিস্তান বিমানযুদ্ধে যুক্ত হলো। ভারতের মিগ-২১ ভূপাতিত করার পর ভারতীয় বাহিনীর পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে আটক করে পাকিস্তান। দুই দিন পর তাঁকে মুক্তি দেওয়া হয়। সূত্র : এনডিটিভি।

 

 

মন্তব্য