kalerkantho

ভোট প্রচারে গঙ্গায় ১৪০ কিমি নৌ সফর শুরু প্রিয়াঙ্কার

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৮ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ভোট প্রচারে গঙ্গায় ১৪০ কিমি নৌ সফর শুরু প্রিয়াঙ্কার

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির খাস তালুকে অভিনব ভোট প্রচার শুরু করছেন কংগ্রেস দলের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। আজ সোমবার গঙ্গায় দীর্ঘ ১৪০ কিলোমিটার জনসংযোগ যাত্রা করবেন তিনি। এলাহাবাদ অর্থাৎ প্রয়াগরাজ থেকে মির্জাপুর পর্যন্ত দীর্ঘ নৌপথে প্রিয়াঙ্কার একাধিক কর্মসূচি রয়েছে। গঙ্গার দুই পারের বিস্তীর্ণ জনপদের সঙ্গে একাত্ম হতে মাঝে মাঝেই থেমে  যাবে প্রিয়াঙ্কার স্টিমার। কোথাও ছোট সভা, কোথাও বা শুধুই সাধারণ মানুষের সুখ-দুঃখের কথা শুনবেন তিনি। রয়েছে একাধিক মন্দির, দরগা পরিদর্শনের কর্মসূচিও। প্রিয়াঙ্কার ভোট প্রচার শেষ হবে মোদির কেন্দ্র বারানসিতে।

কংগ্রেসের তরফে শুক্রবার বিকেলেই প্রিয়াঙ্কার এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছিল। যদিও তখনো নৌবিহারের অনুমতি মেলেনি। কংগ্রস সূত্রে খবর, শনিবার রাতেই সেই অনুমোদন দিয়েছে পুলিশ প্রশাসন। গতকাল রবিবারই লখনউ পৌঁছানোর কথা প্রিয়াঙ্কার। সেখান থেকে সড়কপথে যাওয়ার কথা প্রয়াগরাজে। রাতে সেখানে থাকার পর আজ সকাল থেকে শুরু হবে জলপথে যাত্রা। কংগ্রেস সূত্রে খবর, একাধিক স্টিমার বোটসহ যাত্রা করবেন প্রিয়াঙ্কা। সঙ্গে থাকবে কংগ্রেস নেতাকর্মীরা। তাঁর সফর ঘিরে নিরাপত্তার ব্যবস্থাও করা হয়েছে বলে পুলিশ প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে।

প্রয়াগরাজ থেকে বারানসি—১৪০ কিলোমিটারের দীর্ঘ জলপথে গঙ্গার দুই তীরে রয়েছে এমন জনপদ, যা উত্তর প্রদেশে ভোটের ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা নেয়। এরা মূলত নিম্নবর্গীয় ও নিম্ন মধ্যবিত্ত শ্রেণি। এ ছাড়া রয়েছে বেশ কিছু ওবিসি সম্প্রদায়ভুক্ত গোষ্ঠী। লোকসভা ভোটের মুখে জনসংযোগ বাড়াতে এই সম্প্রদায়ের কাছে নিজেদের বক্তব্য তুলে ধরার চেষ্টা করবেন প্রিয়াঙ্কা। পাশাপাশি মোদি জমানায় কী আশা ছিল, এর কতটা পূরণ হয়েছে বা হয়নি—সেসব কথাও শুনবেন পূর্ব উত্তর প্রদেশের দায়িত্বপ্রাপ্ত কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা।

উদ্দেশ্য আরো রয়েছে। মোদি জমানায় ‘স্বচ্ছ ভারত অভিযান’ চালু হয়েছে। গঙ্গাদূষণ ঠেকাতে হাজার হাজার কোটি টাকা খরচ করেছে কেন্দ্র। কিন্তু গঙ্গা কি আদৌ নির্মল হয়েছে? কংগ্রেস সূত্রে খবর, ভোটারদের এই প্রশ্ন করতে চান প্রিয়াঙ্কা। কারণ, এই প্রকল্পে কী কাজ হয়েছে—সেটা গঙ্গাতীরবর্তী জনপদই সবচেয়ে ভালো জানবে। শুধু প্রতিশ্রুতি বা কাগজে-কলমে নয়, আক্ষরিক অর্থেই জলে নেমে কতটা কাজ হয়েছে, তা নিজের চোখে দেখেছে এই জনগোষ্ঠীর মানুষ। আবার এই প্রকল্পে যাদের সবচেয়ে বেশি ও প্রত্যক্ষ সুবিধা পাওয়ার কথা, সেই গঙ্গাতীরবর্তী মানুষজন কি আদৌ সেটা পেয়েছে, সেই সব বিষয় নিয়েও চর্চা করবেন প্রিয়াঙ্কা।

২০১৪ সালে আগেরবার লোকসভা নির্বাচনে উত্তর প্রদেশের বারানসি ও গুজরাটের বডোদরা কেন্দ্র থেকে প্রার্থী হয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদি। দুটি কেন্দ্রেই জিতেছিলেন। পরে বডোদরা থেকে ইস্তফা দেন মোদি। ফলে বিগত পাঁচ বছর ধরে এই কেন্দ্রেরই সাংসদ তিনি। বিজেপি সূত্রে খবর, এবারও এই বারানসি থেকেই প্রার্থী হচ্ছেন মোদি। প্রিয়াঙ্কার গঙ্গাবিহার শেষ হচ্ছে এই বারানসিতেই। সেখানে একাধিক মন্দির দর্শন যেমন রয়েছে, তেমনি রয়েছে সাধু-সন্ত ও স্থানীয়দের সঙ্গে জনসংযোগ। এ ছাড়া বারানসিতেই একটি হোলি মিলন উৎসবেও যোগ দেবেন প্রিয়াঙ্কা। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।

মন্তব্য