kalerkantho


ব্রাজিল সীমান্ত বন্ধের নির্দেশ মাদুরোর

মার্কিন ত্রাণের বিষয়ে সতর্কতা চীন ও রাশিয়ার

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলা মাদুরো ব্রাজিলের সঙ্গে তাঁদের দেশের সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। বিদেশি ত্রাণ ও মানবিক সহায়তা প্রবেশ নিয়ে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে এই নির্দেশ দেন তিনি। এ ছাড়া কলাম্বিয়ার সঙ্গে সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়ার কথাও বিবেচনা করছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। টেলিভিশনে দেওয়া এক ভাষণে মাদুরো দেশে সংকটের কথা অস্বীকার করে বিদেশি সহায়তার পরিকল্পনাকে যুক্তরাষ্ট্রের নাটক বলে অভিহিত করেন। এদিকে ভেনিজুয়েলার সরকারের বিরোধিতা সত্ত্বেও জোর করে সে দেশে মানবিক সহায়তা পাঠানোর ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছে চীন। আর রাশিয়া বলেছে, যুক্তরাষ্ট্র ত্রাণের ছলে মাদুরোর সরকারের বিরুদ্ধে সামরিক হস্তক্ষেপের সুযোগ খুঁজছে।

মাদুরো বৃহস্পতিবার রাতে টেলিভিশন ভাষণে বলেন, ‘পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত ব্রাজিলের সীমান্ত পুরোপুরি বন্ধ থাকবে।’ এ সময় তাঁর সঙ্গে প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও অন্য শীর্ষস্থানীয় সামরিক কমান্ডাররা ছিলেন। ব্রাজিলের সঙ্গে ভেনিজুয়েলার সীমান্ত সাধারণত রাতে বন্ধ থাকে এবং দিনে খোলা থাকে।

স্বঘোষিত প্রেসিডেন্ট হুয়ান গুয়াইদোকে যে কয়েকটি দেশ স্বীকৃতি দিয়েছে তাদের মধ্যে ব্রাজিল অন্যতম। গত মঙ্গলবার ব্রাজিল ঘোষণা করে, যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতায় খাদ্য ও ওষুধ পাকারাইমাতে পাওয়া যাবে। এসব খাবার ও ওষুধ ভেনিজুয়েলার ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট হুয়ান গুয়াইদোর নেতৃত্বে ভেনিজুয়েলার ট্রাকে করে নিয়ে যাওয়া হবে। 

ভেনিজুয়েলার বিরোধীদলীয় নেতা হুয়ান গুয়াইদোর নেতৃত্বে মানবিক সহায়তার একটি গাড়িবহর কলাম্বিয়ার সীমান্তের দিকে যাচ্ছে। এদিকে গতকাল বিকেলে সীমান্তের কলাম্বিয়া অংশে ভেনিজুয়েলার নাগরিকদের জন্য অর্থ সংগ্রহের উদ্দেশ্যে একটি কনসার্ট হওয়ার কথা। ব্রিটিশ ধনকুবের স্যার রিচার্ড ব্রানসন এ কনসার্টের আয়োজক। ভেনিজুয়েলার নাগরিকদের জন্য ১০০ মিলিয়ন ডলার সংগ্রহের আশা করছেন তিনি। কনসার্টে তিনি দুই লাখ ৫০ হাজার দর্শক উপস্থিতির প্রত্যাশা করছেন।

স্যার রিচার্ড ব্রানসনের কনসার্ট যখন হবে, তখন একই সময়ে মাত্র ৩০০ মিটার দূরে মাদুরো সরকার ‘হ্যান্ডস অব ভেনিজুয়েলা’ নামের একটি ইভেন্টের আয়োজন করেছে। এদিকে ভেনিজুয়েলার সামরিক বাহিনী কলাম্বিয়া থেকে আসা যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তা আটকে দিয়েছে। ফলে এসব সহায়তার পণ্য ভেনিজুয়েলার উত্তরে ডাচ ক্যারিবিয়ান দ্বীপ উপকূলে তা জড়ো করা হচ্ছে।

ভেনিজুয়েলার সরকারের বিরোধিতা সত্ত্বেও জোর করে মানবিক সহায়তা পাঠানোর ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছে চীন। সংকট জর্জরিত দেশে এতে করে হানাহানি তৈরি হতে পারে বলে দেশটি সতর্ক করে। চীন ভেনিজুয়েলাকে বিপুল পরিমান অর্থ সহায়তা দিয়েছে। সূত্র : এএফপি।

 



মন্তব্য