kalerkantho


এমপিদের ‘ব্রেক্সিট চক্রান্তে’ গভীর উদ্বেগ টেরেসার

বাধা দূর করতে আইরিশ চুক্তি চান ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২১ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০




এমপিদের ‘ব্রেক্সিট চক্রান্তে’ গভীর উদ্বেগ টেরেসার

ব্রেক্সিট নিয়ে সর্বদলীয় এমপিদের একটি গ্রুপের ‘ষড়যন্ত্রের’ খবরে ‘চরম উদ্বেগ’ প্রকাশ ও তীব্র সমালোচনা করেছে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মের ডাউনিং স্ট্রিট অফিস। ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বের হয়ে যাওয়ার (ব্রেক্সিট) প্রক্রিয়াটির নিয়ন্ত্রণ সরকারের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেওয়ার এই চক্রান্তের খবর গতকাল রবিবার জানিয়েছে ব্রিটিশ গণমাধ্যমগুলো।

ব্রিটিশ পত্রিকাগুলোর খবরে বলা হয়, আন্তর্দলীয় এমপিদের একটি গ্রুপ সরকারের ব্রেক্সিট পরিকল্পনার নিয়ন্ত্রণ নিতে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের হাউস অব কমনসের বিধিমালা নতুন করে লিখতে চাইছেন। প্রধানমন্ত্রীর ব্রেক্সিট পরিকল্পনা নস্যাৎ করতে তাঁরা বিধিমালায় আধিপত্য প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করছেন। এ জন্য প্রয়োজনীয় সংশোধনী প্রস্তাবও এই সপ্তাহেই পার্লামেন্টে তুলবেন তাঁরা।

এই খবরে ক্ষোভ প্রকাশ করে ডাউনিং স্ট্রিটের মুখপাত্র বলেন, ‘ব্রিটিশ জনগণ ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগ করতে ভোট দিয়েছে। এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ যে নির্বাচিত রাজনীতিবিদরা জনগণের রায় মেনে চলবেন। সুতরাং এই ঐতিহাসিক গুরুত্বপূর্ণ সময়ে একটি শান্তিপূর্ণ প্রস্থানের জন্য সরকার আইনগত যে সমাধান খুঁজছে, সরকারের সেই ক্ষমতা সরিয়ে নেওয়ার যেকোনো ধরনের চেষ্টা গভীর উদ্বেগের বিষয়।’ এটি বিপজ্জনক বলে মুখপাত্র মন্তব্য করেন।

প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে আজ সোমবার পার্লামেন্টে তাঁর নতুন ব্রেক্সিট পরিকল্পনা তুলে ধরবেন। এর ওপর আগামী সপ্তাহে পার্লামেন্টে বিতর্কের কথা রয়েছে। এ ছাড়া এ নিয়ে বিরোধী দলগুলোর সঙ্গে তাঁর আলোচনা নিয়ে সিনিয়র মন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করার কথাও রয়েছে। এরই মধ্যে টেরেসার আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমন্ত্রী লিয়াম ফক্স হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, এমপিরা যদি ২০১৬ সালের গণভোটের রায়কে সম্মান না জানান, তাহলে ‘রাজনৈতিক সুনামি’ ঘটে যাবে।

ব্রেক্সিট বাধা ঠেকাতে আইরিশ চুক্তি চান মে : ব্রিটিশ পত্রিকা সানডে টাইমস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ব্রেক্সিট নিয়ে বাদানুবাদের প্রেক্ষাপটে বিরোধীদের বাধা অপসারণে প্রতিবেশী আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে একটি দ্বিপক্ষীয় চুক্তি করতে চান ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে। তিনি মনে করছেন, এই চুক্তি হলে তাঁর ব্রেক্সিট পরিকল্পনায় ডেমোক্রেটিক ইউনিয়নিস্ট পার্টির বাধা দূর হবে। এই দলটি গত সপ্তাহের অনাস্থা ভোটে টেরেসা মের সংখ্যালঘু সরকারকে সমর্থন জানিয়েছিল। তবে আইরিশ পত্রিকাগুলো তাদের সরকারের সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, এ ধরনের দ্বিপক্ষীয় চুক্তি ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে যায় না।

সূত্র : এএফপি, টাইমস অব ইন্ডিয়া।

 



মন্তব্য