kalerkantho


মোদিকে ইমরানের বার্তা

দ্বিপক্ষীয় আলোচনা শুরুর আহ্বান

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



দ্বিপক্ষীয় আলোচনা শুরুর আহ্বান

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান দ্বিপক্ষীয় আলোচনা শুরুর আহ্বান জানিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে একটি চিঠি দিয়েছেন। ‘মোদি সাহাব’ সম্বোধন করে লেখা এই চিঠিতে ইমরান দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের মধ্যে আলোচনা শুরুর আরজিও জানান। যদিও নয়াদিল্লির তরফে এ নিয়ে এখনো কোনো প্রতিক্রিয়া মেলেনি। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তারা ভারতের প্রতিক্রিয়ার অপেক্ষায় রয়েছে।

শপথ নিয়েই ইমরান বলেছিলেন, ভারত এক কদম এগোলে পাকিস্তান দুই পা এগোবে। এবার সেটাই যেন প্রমাণের চেষ্টা করলেন ইমরান খান। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে একটি চিঠি পাঠিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। সেই চিঠির জবাবে ক্রিকেটার-রাজনীতিবিদ ইমরান গত ১৪ সেপ্টেম্বর একটি চিঠি পাঠান। গতকাল বৃহস্পতিবার এ চিঠি পাঠানো নিয়ে প্রথম প্রতিবেদন প্রকাশ করে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

চিঠিতে ইমরান লিখেছেন, ‘ভারত-পাকিস্তান সম্পর্ক যে জটিল, তা অস্বীকার করার উপায় নেই। জম্মু-কাশ্মীরসহ দুই দেশের অনেক বিষয় নিয়ে সংঘাত রয়েছে। সেগুলো শান্তিপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমে সেতুবন্ধ করে আমরা আমাদের নিজ নিজ দেশের জনগণ তথা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে উৎসর্গ করতে পারি।’

ইমরান আরো লিখেছেন, ‘দুই দেশের মানুষই শান্তি চায়। আমি চাই, সেই শান্তি প্রতিষ্ঠায় নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের আগেই পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশির সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের পৃথক বৈঠক হোক। তাঁরাই সেই প্রক্রিয়া এগিয়ে নিয়ে যাবেন।’ ইসলামাবাদে সার্ক সম্মেলনের সময় মোদিকে পাকিস্তান সফরের আমন্ত্রণ জানিয়ে ইমরান আরো লিখেছেন, এই সম্মেলনেই থমকে থাকা দ্বিপক্ষীয় আলোচনা ফের শুরু করা যেতে পারে।

অতীতে অবশ্য ভারত বহুবারই বলেছে, ‘সন্ত্রাস এবং আলোচনা একসঙ্গে চলতে পারে না।’ এখনো সেই অবস্থানেই অনড় দিল্লি। তা ছাড়া ইসলামাবাদের এই অবস্থান বাস্তবে কতটা আন্তরিক এবং কতটা আন্তর্জাতিক কূটনৈতিক মহলে ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধারের চেষ্টা, সেটাও যাচাই করে নিতে চাইছে ভারত। তাই আপাতত চিঠি নিয়ে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফে কোনো প্রতিক্রিয়া মেলেনি। তবে পরের সপ্তাহে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের ফাঁকে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীর যে বৈঠক রয়েছে, তা এখন পর্যন্ত নির্ধারিতই বলে জানা গেছে। চিঠির ব্যাপারে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ডা. মুহাম্মদ ফয়সাল এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী ইমরান অত্যন্ত ইতিবাচকভাবে ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদির চিঠির জবাব দিয়েছে। আসুন, আলোচনার মাধ্যমেই আমরা সব সমস্যার সমাধান করি।’ সূত্র : ডন।



মন্তব্য