kalerkantho


নিজামদের সোনার টিফিন বক্সে প্রতিদিন খাবার খেত চোর!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



নিজামদের সোনার টিফিন বক্সে প্রতিদিন খাবার খেত চোর!

ভারতের হায়দরাবাদের নিজামরা সোনার টিফিন বক্স থেকে কখনো খেয়েছেন কি না, জানা নেই। তবে ওই শহরের এক দাগি চোর প্রতিদিন নিজামদের টিফিন বক্স থেকে আয়েশ করে খাবার খেত! নিজামদের মিউজিয়াম থেকে ওই টিফিন বক্সসহ অন্য মূল্যবান সামগ্রী হাতিয়ে সে এবং তার সঙ্গী সটান গিয়ে ওঠে মুম্বাইয়ের একটি পাঁচতারা হোটেলে। আর প্রতিদিনই ওই হীরা-রুবি-পান্নাখচিত সোনার টিফিন বক্সে খাবার খেত সে। সেখানে বসেই নবাবি চালে দিন দুয়েক কাটিয়েও ছিল তারা। তবে ভাগ্য সুপ্রসন্ন না থাকায় শেষমেশ পুলিশের জালে ধরা পড়ে গেল চোরেরা।

গত ২ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে ওই দুজন ঢুকেছিল পুরানি হাভেলির নিজামদের মিউজজিয়ামে। হায়দরাবাদের পুরানি হাভেলির নিজামদের মিউজিয়াম থেকে চুরি হয় সোনার টিফিন বক্সসহ মহামূল্যবান জিনিসপত্র। চুরি যাওয়া সোনার টিফিন বক্স উদ্ধারের পর পুলিশ জানায়, ওই দাগি চোরদের নজরই ছিল মিউজিয়ামের সোনার টিফিন বক্সসহ অন্য মূল্যবান জিনিসপত্রের দিকে। চুরির সপ্তাহখানেকের মধ্যে পুলিশের জালে ধরা পড়ে দুজন।

পুলিশ জানিয়েছে, চোরেরা মিউজিয়াম থেকে হীরা-পান্না-রুবিখচিত চার কেজি ওজনের একটি সোনার টিফিন বক্স তুলে নেয়। সেই সঙ্গে নিয়ে নেয় রুবি-পান্নাখচিত সোনার কাপ-প্লেট, একটি চামচ ও একটি ট্রে।

হায়দরাবাদের পুলিশ কমিশনার অঞ্জনি কুমার জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, দুবাইয়ের বাজারে ওই তিন কৌটাযুক্ত সোনার টিফিন বক্সসহ অন্য সামগ্রীর দাম ৩০-৪০ কোটি টাকা। তবে এ বিষয়ে আরো খোঁজখবর করার পর তাঁরা নিশ্চিত, শুধু ঐতিহাসিক মূল্যের কারণেই আন্তর্জাতিক বাজারে ওই সব জিনিসের মূল্য ১০০-১২০ কোটি টাকা হবে। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।



মন্তব্য