kalerkantho


সুইডেনে সরকার গঠনে অনিশ্চয়তা!

স্ক্যান্ডিনেভিয়া প্রতিনিধি   

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



ঝুলন্ত পার্লামেন্টের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে সুইডেন। প্রধান দুই জোটের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে রবিবার দেশটির জাতীয় নির্বাচনের ভোট নেওয়া হয়। সবাইকে অবাক করে দিয়ে আলফ্রেড নোবেলের শান্তির দেশটিতে ১৭.৬ শতাংশ ভোট পেয়ে সংসদের তৃতীয় বৃহত্তম দল হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে হিটলারের নািস আদর্শের অনুসারী উগ্র বর্ণবাদী দল ‘সুইডেন ডেমোক্র্যাটস (এসডি)’। সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট নেতৃত্বাধীন ক্ষমতাসীন তিন দলীয় বামজোট পেয়েছে ৪০.৬ শতাংশ এবং মডারেট দল নেতৃত্বাধীন চারদলীয় মধ্য ও ডানপন্থী বিরোধী জোট পেয়েছে ৪০.৩ শতাংশ ভোট। সংসদীয় আসনের হিসাবে বামজোট পেয়েছে ১৪৪টি, মধ্য ও ডান জোট পেয়েছে ১৪৩টি এবং সুইডেন ডেমোক্র্যাটস এককভাবে পেয়েছে ৬২টি আসন।

সর্বস্তরের ভোট গণনা শেষ হলেও এখন পর্যন্ত প্রবাসী সুইডিশদের ভোট গণনা শেষ হয়নি। যার কারণে বুধবারের আগে বলা যাচ্ছে না পরবর্তী সরকার কারা গঠন করবে। তবে প্রায় ৫০ হাজার প্রবাসী ভোট সর্বশেষ ফলাফলে কোনো বড় ধরনের পরিবর্তন ঘটাবে না বলে জানাচ্ছে সুইডেনের বিভিন্ন মাধ্যম।

সুইডেনে ভোট দেওয়া হয় দলকে। সে কারণে যে দল যত বেশি ভোট পায়, সে দলের আসনসংখ্যাও

তত বেশি হয়। রবিবার রাত ১২টার দিকের নির্বাচনী ফলাফলের চূড়ান্ত পর্যায়ে বিরোধী জোট প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ চেয়ে বক্তব্য দেয়। তার কিছুক্ষণ পর ক্ষমতাসীন জোটের প্রধানমন্ত্রী স্টেফান লোভেন বিরোধী জোটের দাবি প্রত্যাখ্যান করে বক্তব্য দিলে পরবর্তী সরকার গঠনের ব্যাপারে অনিশ্চয়তার সৃষ্টি হয়। বিরোধী জোটের দাবি, প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ না করে সংবিধান লঙ্ঘন করেছেন। জবাবে প্রধানমন্ত্রী লোভেন সে দাবিও প্রত্যাখ্যান করেন।

প্রধানমন্ত্রী লোভেন তাঁর বক্তব্যে অত্যন্ত বিনয়ের সঙ্গে এবং স্পষ্ট ভাষায় বিরোধী জোটের প্রতি আহ্বান জানান, নািস অনুসারী বর্ণবাদী দল সুইডেন ডেমোক্র্যাটসকে প্রতিহত করার জন্য তাঁর সরকারের কোনো বিকল্প নেই। তিনি ‘ব্লক পলিটিক্স’ থেকে বেরিয়ে এসে সুইডেন বাঁচাতে সবার সমর্থন কামনা করেন। তিনি বলেন, ‘সুইডেনকে রক্ষা করতে এবং বিশ্বে সুইডেনের ভাবমূর্তি রক্ষা করতে যেকোনো মূল্যেই হোক, সবার উচিত একজোট হয়ে উগ্রবাদকে প্রতিহত করা।’

নিয়মানুসারে নির্বাচন শেষ হওয়ার দুই সপ্তাহ পরে প্রথম সংসদ অধিবেশন শুরু হবে। সেখানে বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অনাস্থা জানিয়ে পদত্যাগে বাধ্য করা হবে বলে হুমকি দিয়েছে চারদলীয় বিরোধী জোট। বিরোধী জোটে না থেকেও এই প্রস্তাবে শর্তহীনভাবে সমর্থন জানাবে বলে বক্তব্য দিয়েছে বর্ণবাদী সুইডেন ডেমোক্র্যাটস। প্রধানমন্ত্রী লোভেনকে পদত্যাগে বাধ্য করা হলে প্রথানুসারে সংসদের স্পিকার তখন বিরোধী জোটকে সরকার গঠন করতে বলবেন। বামজোট থেকে একটি আসন কম পেলেও বিরোধী জোট সরকার গঠন করলে তাকে সমর্থন জানাবে সুইডেন ডেমোক্র্যাটস।



মন্তব্য