kalerkantho


ইমরানকে চিঠি লিখে শুভেচ্ছা মোদির

বরফ গলার ইঙ্গিত!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২১ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০



শনিবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন সাবেক ক্রিকেটার থেকে রাজনীতিক বনে যাওয়া ইমরান খান। তার পরেই তাঁকে চিঠি লিখে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন পাকিস্তানের চিরবৈরী প্রতিবেশী ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। চিঠির বক্তব্য ছিল, আগামী দিনে পাকিস্তানের সঙ্গে শান্তিপূর্ণ সম্পর্ক রাখতেই উৎসাহী ভারত। গতকাল সোমবার এমনই খবর প্রকাশ করেছে সংবাদ সংস্থা পিটিআই।

চিঠিতে উঠে এসেছে ইমরান খানের সঙ্গে বেশ কিছুদিন আগে হওয়া মোদির বার্তালাপের কথা। তিনি আরো একবার ইমরানকে মনে করিয়ে দিয়েছেন দুই দেশের মধ্যে শান্তি ও বন্ধুত্বের সম্পর্ক স্থাপনে তাঁদের যৌথ লক্ষ্যের কথা। অন্যদিকে রবিবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তাঁর প্রথম ভাষণে ইমরান খান জানিয়েছেন, প্রত্যেক প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে পাকিস্তান সুসম্পর্ক তৈরি করবে। তিনি এদিন বলেন, ‘আমি প্রত্যেক প্রতিবেশী রাষ্ট্রের সঙ্গে কথা বলেছি। ইনশাল্লাহ...প্রত্যেকের সঙ্গেই আমরা সম্পর্ক ভালো করব। প্রতিবেশীদের সঙ্গে অশান্তি না মিটলে পাকিস্তানে কখনো শান্তি ফিরবে না।’

জুলাই মাসে নির্বাচনী প্রচারের সময়ও ইমরান বারবার বলেছিলেন, ভারত যদি এক পা এগোয়, তাহলে পাকিস্তান আরো দুপা এগিয়ে যাবে শান্তি রক্ষার খাতিরে।

এদিকে মোদির চিঠির ব্যাপারে পাকিস্তানের নবনির্বাচিত পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মহম্মদ কুরেশি দাবি করেছেন যে ‘মোদি চিঠিতে ইমরানকে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছেন।’ এর পরই ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফে বলা হয়েছে, মোদি শুধু শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, আগ বাড়িয়ে কোনো আলোচনার প্রস্তাব দেননি। তিনি লিখেছেন, ‘আমরা শান্তিপূর্ণ প্রতিবেশী হিসেবে থাকতে পারি। আমাদের উচিত গঠনমূলক এবং অর্থবহ পদক্ষেপ করা। পাকিস্তান এই মন্তব্যকেই আলোচনার আহ্বান হিসেবে বর্ণনা করতে চাইছে।’

অবশ্য, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নেওয়ার পর এর আগে ইসলামাবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে কুরেশি বলেছিলেন, ‘শান্তি স্থাপনে পাকিস্তান ভারতের সঙ্গে অবিচ্ছিন্ন আলোচনা প্রয়োজন। এটাই আমাদের উভয়ের জন্য ভালো হবে।’

সূত্র : পিটিআই।



মন্তব্য