kalerkantho


হাইকোর্টের নির্দেশ

পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এমপি পদে অযোগ্য

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৭ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এমপি পদে অযোগ্য

সংযুক্ত আরব আমিরাতে (ইউএই) একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি ও বেতনপ্রাপ্তির তথ্য গোপন করে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খাজা আসিফ নির্বাচনী আইন ভেঙেছেন, এমন অভিযোগে গতকাল বৃহস্পতিবার ইসলামাবাদ হাইকোর্টের তিন সদস্যের বিশেষ বেঞ্চ তাঁকে পার্লামেন্ট সদস্য হিসেবে অযোগ্য ঘোষণা করেছেন।

বিচারকদের মতে, ক্ষমতাসীন পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) দলের অন্যতম নেতা খাজা আসিফ শুধু ইউএইতে বসবাসের অনুমতির প্রমাণ যুক্ত করেছেন। কিন্তু সে দেশের একটি প্রতিষ্ঠানে পেশাদারির সঙ্গে কাজ করা এবং বেতন নেওয়ার তথ্য গোপন করেছেন তিনি। তথ্য গোপন করে তিনি নির্বাচনী আইন ভেঙেছেন এবং এ কারণে তিনি ২০১৩ সালে অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে অংশগ্রহণের যোগ্য ছিলেন না। এসব কারণে খাজা আসিফকে পার্লামেন্ট সদস্য হিসেবে অযোগ্য ঘোষণা করেন আদালত।

এর আগে গত বছর জুলাইয়ে দুর্নীতির দায়ে প্রধানমন্ত্রিত্ব খোয়াতে হয়েছে পিএমএল-এন নেতা নওয়াজ শরিফকে। শুধু তা-ই নয়, এ মাসের শুরুতে তাঁকে রাজনীতিতে আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ করেছেন আদালত। এবার খাজা আসিফের বিরুদ্ধে আদালতের রায়ের মধ্য দিয়ে পিএমএল-এনের ওপর নতুন খড়্গ নেমে এলো।

খাজা আসিফকে পার্লামেন্ট সদস্য হিসেবে অযোগ্য ঘোষণা করায় আদালতের সমালোচনা করে গতকাল এক টুইটবার্তায় নওয়াজকন্যা মরিয়ম লেখেন, ‘সুষ্ঠু প্রতিযোগিতার মাধ্যমে যাদের সরানো যাবে না, পাতানো ম্যাচ দিয়ে তাদের সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। আমার কথা শুনে রাখুন, খাজা আসিফের ছায়াকেও লোকে ভোট দেবে।’

নওয়াজের ঘনিষ্ঠজনদের একজন খাজা আসিফ এর আগে প্রতিরক্ষামন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। পাকিস্তানের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে এ নিয়ে টানা চতুর্থবার সদস্য হয়েছিলেন তিনি। সূত্র : ডন। 



মন্তব্য