kalerkantho


বয়স জালিয়াতি

নেপালের প্রধান বিচারপতি বরখাস্ত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৬ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



নেপালের বিচারিক পরিষদ দেশটির প্রধান বিচারপতি গোপাল প্রসাদ পারাজুলিকে বয়স জালিয়াতির অভিযোগে বরখাস্ত করেছে। পুনর্নির্বাচিত হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট বিদ্যা দেবী ভাণ্ডারিকে শপথ পড়ানোর আগ দিয়ে গত বুধবার তাঁকে বরখাস্ত করা হয়।

বিচারপতি পারাজুলির পরিচয়পত্র এবং শিক্ষা সনদের সঙ্গে বয়সে সামঞ্জস্য নেই। নেপালে রাষ্ট্রীয় কর্মকর্তাদের অবসর নেওয়ার বয়স ৬৫। পরিষদ জানিয়েছে, গত বছর আগস্টেই ওই বয়স পার করে এসেছেন বিচারপতি পারাজুলি।

বিচারিক পরিষদের দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘১৪ মার্চ ২০১৮ সালে সচিব পর্যায়ে নেওয়া এক সিদ্ধান্ত অনুসারে আমরা সম্মানিত গোপাল প্রসাদ পারাজুলিকে জানাচ্ছি, তিনি আর প্রধান বিচারপতি পদে থাকছেন না। কারণ ২০১৭ সালের ৫ আগস্ট তাঁর বয়স ৬৫ পার হয়ে গেছে।’

নেপালের একটি সংবাদপত্র কান্তিপুর ডেইলি সম্প্রতি প্রধান বিচারপতির বয়সের বিষয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদন প্রকাশ করে। তাদের দাবি ছিল, প্রধান বিচারপতি সরকারি নথিতে পাঁচটি ভিন্ন জন্ম সালের কথা উল্লেখ করেছেন। এই প্রতিবেদনগুলোর জন্য পত্রিকাটির বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা করেন পারাজুলি। এই মামলা নিয়ে সুশীল সমাজ ও সাংবাদিকরা তাঁর তীব্র সমালোচনা করেন। বিচারকরাও তাঁর বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেন। অন্তত ৯ জন বিচারপতি তাঁদের জন্য বরাদ্দ বেঞ্চে কাজ করতে অস্বীকৃতি জানান।

তবে বিচারিক পরিষদের দেওয়া বিবৃতিতে প্রেসিডেন্ট বিদ্যা দেবী ভান্ডারির দ্বিতীয় মেয়াদের শপথ কে পড়াবেন সে বিষয়ে কোনো নির্দেশনা ছিল না।  সূত্র: এনডিটিভি।

 



মন্তব্য