kalerkantho


কার্টুনের মতো স্কেচ দেখে অপরাধী শনাক্ত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



কার্টুনের মতো স্কেচ দেখে অপরাধী শনাক্ত

অপরাধী ধরার জন্য পুলিশ বা গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন সাধারণত পেশাদার আঁকিয়ে দিয়ে অপরাধীর স্কেচ করিয়ে নেন। অপরাধীকে যাঁরা দেখেছেন তাঁদের মুখের বর্ণনা শুনেই আঁকিয়েরা অপরাধীর সম্ভাব্য একটি চেহারা দাঁড় করিয়ে থাকেন স্কেচে এবং সেটি নিয়েই অপরাধীর সন্ধানে নেমে পড়ে পুলিশ বা তদন্তসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা; কিন্তু অপেশাদার হাতে কার্টুনের মতো স্কেচ দিয়ে অপরাধী ধরার ঘটনা কে কবে শুনেছে? অথচ, তাই ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যে।

দোকানের পয়সা খোয়া যাওয়ার ঘটনায় চোরের স্কেচ এঁকেছিলেন দোকানকর্মী। স্কেচটি হয়েছিল একেবারে কার্টুনের মতো। তাতে অপরাধীর শারীরিক বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে ধারণা দেন দোকানকর্মী। অপেশাদার হাতের ওই স্কেচ দেখেই পুলিশের একজন চৌকস কর্মকর্তা শনাক্ত করেছেন দাগি অপরাধীকে।

সন্দেহভাজন ওই অপরাধীর নাম হুং ফোক এনগুয়েন (৪৪)। গত ৩০ জানুয়ারি সে একটি মার্কেটে কর্মীর ছদ্মবেশ ধারণ করে ক্যাশ বাক্স থেকে পয়সা নেয়। এ সময় দোকানকর্মী সেখান থেকে একটু দূরে পায়চারি করছিলেন।

দোকানকর্মী পুলিশকে জানান, অপরাধী একজন পুরুষ যার বয়স হবে ৩০ থেকে ৪০, পুঁচকে প্রকৃতির। সে দক্ষিণ আমেরিকান অথবা এশীয় হতে পারে।

ল্যানকাস্টার পুলিশ বলছে, ওই কর্মীর আঁকা সাদা-কালো স্কেচ আর সন্দেহভাজন চোরের কার্যপ্রণালি দেখে অপরাধীকে শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে। দোকানকর্মী বেশ অপটু একটি স্কেচ হাজির করেন। আর অপরাধীর শারীরিক গঠনের বর্ণনা দেন। পরে একজন তদন্তকারী তাঁর স্মৃতিশক্তি খাটিয়ে সন্দেহভাজনকে আন্দাজ করেন। ওই তদন্তকারী পুলিশ ফাইল থেকে সন্দেহভাজনের ছবি প্রত্যক্ষদর্শী দোকানকর্মীকে দেখান। তিনি ছবি দেখে সহজেই অপরাধীকে শনাক্ত করেন।

বর্তমানে পুলিশ এনগুয়েনকে খুঁজছে। তার হদিস পেতে এরই মধ্যে জনসাধারণের সহায়তা চাওয়া হয়েছে। পুলিশের ভাষ্য, সন্দেহভাজনের স্ট্রেট কালো চুল আছে, যা তার কান ঢেকে দেয়। তার গালের হাড় চওড়া আর থুতনি সরু প্রকৃতির।

সূত্র : বিবিসি।



মন্তব্য