kalerkantho


বাংলা একাডেমিতে বইয়ের আড়ং : চলছে ৫০ ভাগ কমিশনে বই বিক্রি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ এপ্রিল, ২০১৮ ২১:৪২



বাংলা একাডেমিতে বইয়ের আড়ং : চলছে ৫০ ভাগ কমিশনে বই বিক্রি

বাংলা একাডেমিতে শুরু হয়েছে বইয়ের আড়ং। একাডেমি থেকে প্রকাশিত দুই হাজার বই আড়ং থেকে সর্বোচ্চ ৫০ ভাগ কমিশনে বিক্রি হচ্ছে।
আড়ং’এ বই বিক্রিতে কমিশনের বিষয়ে একাডেমি থেকে জানান হয়, আড়ং-এ তরুণ লেখক প্রকল্পের বই ও দশ বছর বা তারও বেশি পূরনো বইয়ে ৫০ ভাগ কমিশনে, অন্যান্য পুরনো বই ৩০ ভাগ কমিশনে এবং নতুন বই ২৫ ভাগ কমিশনে বিক্রয় হচ্ছে ।
বাংলা একাডেমির ভেতরে রবীন্দ্র চত্বরে, ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ ভবনের নিচতলায় এবং ড. মুহম্মদ এনামুল হক ভবনের নিচতলায় আড়ং’এ এসব বই বিক্রি করা হচ্ছে।
বাংলা একাডেমির পরিচালক ড. জালাল আহমদ বাসসকে আজ এই তথ্য জানান। বইপ্রেমী পাঠকদের জন্য আড়ং থেকে বই কেনা সাশ্রয়ী উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিভিন্ন বিষয়ের বই ভিন্ন ভিন্ন কমিশনে বিক্রয় করা হচ্ছে। তিনটি ক্যাটাগরিতে এবার কমিশন দেয়া হচেছ।
এবারের একুশের গ্রন্থমেলায় প্রকাশিত নতুন সব বই আড়ং-এ বিক্রি হচ্ছে। পয়লা বৈশাখ উপলক্ষে গতকাল থেকে বাংলা একাডেমি এই আড়ং চালু করেছে। ১০ বৈশাখ পর্যন্ত আড়ং’এ বই বিক্রি অব্যাহত থাকবে। প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত আড়ং খোলা থাকবে।
এ দিকে বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে বাংলা একাডেমিতে চলছে ১০ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা। মেলা চলবে দশ বৈশাখ পর্যন্ত। বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশনের সাথে যৌথভাবে বাংলা একাডেমি এই মেলার আয়োজন করেছে। এছাড়া নানা ধরনের পণ্য সামগ্রী স্টলও রয়েছে মেলায়। একাডেমির বাগান ,ভাষা সৈনিক চত্বর, বয়রা তলা, পুকুর পারে বৈশাখী মেলার স্টলগুলো স্থাপিত হয়েছে। দেশের কুটির শিল্পজাত দ্রব্য নিয়ে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান,সংগঠন ও ব্যবসায়ীরা এতে অংশ নিচ্ছে।
বৈশাখী মেলা চলছে প্রতিদিন সকাল নয়টা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত। এছাড়া বৈশাখী মেলা মঞ্চে রয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে খ্যাতিমান শিল্পীরা সংগীত পরিবেশন করছেন।



মন্তব্য