kalerkantho


নাসির আলী মামুনের একক আলোকচিত্র প্রদর্শনী কাল শুরু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ এপ্রিল, ২০১৮ ২২:০৪



নাসির আলী মামুনের একক আলোকচিত্র প্রদর্শনী কাল শুরু

বিশিষ্ট আলোকচিত্র শিল্পী নাসির আলী মামুনের ২৪ দিনব্যাপী একক পোর্ট্রটে আলোকচিত্র প্রদর্শনী আগামীকাল বিকেলে জাতীয় জাদুঘরে শুরু হবে। প্রদর্শনীর শিরোনাম হচ্ছে ‘ফটোজিয়াম’।
শিল্পী নাসির আলী মামুনের এটা ৫৭তম প্রদর্শনী। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের খ্যাতিমানদের সাদা-কালো ছবি এতে প্রদর্শিত হবে।
জাতীয় জাদুঘরের পক্ষ থেকে এই প্রদর্শনীর আয়োজন করা হচ্ছে। গত সাতচল্লিশ বছরে শিল্পীর ধারণ করা ৮ হাজার ছবি থেকে বাছাই করা ১৩২টি পোর্ট্রটে এই প্রদর্শনীতে স্থান পাচ্ছে। প্রদর্শনী উৎসর্গ করা হয়েছে জাতীয় অধ্যাপক আবদুর রাজ্জাককে।
আগামীকাল বিকেল পাঁচটায় জাতীয় জাদুঘরে নলিনীকান্ত ভট্টশালী গ্যালারিতে আয়োজিত এই প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জমান নূর। প্রদর্শনী উদ্বোধন করবেন ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান।
প্রদর্শনীতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ দেশের রাজনীতি,শিল্প,সাহিত্য,শিক্ষা,সংস্কৃতিসহ বিভিন্ন অঙ্গণের খ্যাতিমান ব্যক্তিত্বদের আলোকচিত্র এতে স্থান পাচ্ছে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের খ্যাতিমান লেখক, রাজনীতিকদেরও বেশ কয়েকটি ছবি থাকছে প্রদর্শনীতে।
শিল্পী নাসির আলী মামুন আজ বাসসকে এই প্রদর্শনী সম্পর্কে বলেন, গত সাতচল্লিশ বছরে তিনি কবি,সাহিত্যিক, লেখক, রাজনীতিক, শিক্ষাবিদ, বিজ্ঞানী, শিল্পী, অভিনেতাসহ বিভিন্ন অঙ্গণের প্রায় ৮ হাজার ব্যক্তির ছবি তুলেছেন। বিদেশেরও অসংখ্য বিশিষ্ট জনের ছবি ধারণ করেন। এ সব ছবি থেকে শীর্ষমানের ব্যাক্তিত্বদের পোর্ট্রেট এতে স্থান পাচ্ছে।
তিনি বলেন, ‘ কবি,সাহিত্যিক, লেখক, শিল্পীদের মধ্যেকার অনেক খ্যাতিমানরা জাতীয় পর্যায়ের অনেক সম্মান পান না। তাদের জীবেন অনেক দু:খ, বেদনাও রয়েছে। আমি তাদের ছবি তুলেছি প্রায় পাঁচ দশক ধরে। রাজনৈতিক ব্যাক্তিরাও রয়েছেন আমার এই প্রদর্শনীর ক্যানভাসে। এই ছবিগুলো সংরক্ষণ করার জন্যে তিনি সরকার বা কোন প্রতিষ্ঠান যদি এগিয়ে আসেন, সেই দৃষ্টি আকর্ষন করে বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর তোলা পাঁচটি ছবি রয়েছে এতে। এগুলো তো আমি তুলেছি। এমনি আরও অনেক খ্যাতিমানদের ছবি রয়েছে। এগুলো সংরক্ষণ করা না হলে এক সময় ছবিগুলো নষ্ট হয়ে যাবে।
প্রদর্শনীতে যাদের পোট্রেট স্থান পাচ্ছে, তারা হচ্ছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী, কাজী নজরুল ইসলাম, অধ্যাপক মোজাফফর আহমেদ, কমরেড মণি সিংহ, কর্ণেল ওসমানী,মাহাথির মোহাম্মদ,ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ, শওকত ওসমান, সুফিয়া কামাল, শামসুর রাহমান,গুনথার গ্রাস, গাজীউল হক, ভাষাসৈনিক আবদুল মতিন, জাতীয় অধ্যাপক আবদুর রাজ্জাক, সরদার ফজলুল করিম, অধ্যাপক সনজীদা খাতুন, অমর্ত্য সেন, আহসান হাবীব, আবু জাফর ওবায়দুল্লাহ, শহীদ কাদরী, সৈয়দ শামসুল হক, আল মাহমুদ, হাসান আজিজুল হক, চিত্তরঞ্জন সাহা,আহমদ ছফা, আশরাফ সিদ্দিকী, সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়, আবু হেনা মোস্তফা কামাল, অরুন্দ্যুতি রায়, আহমেদ শরীফ,বেলাল চৌধুরী, আলী যাকের, রামেন্দু মজুমদার, সেলিনা হোসেন, নির্মলেন্দু গুণ, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়,শামসুজ্জামান খান, সেলিম আল দীন, হুমায়ুন আজাদ, সুরাইয়া খানম, হুমায়ুন ফরিদী, ত্রিদিব দস্তিদার, ফেরদৌসী রহমান প্রমুখ।
চব্বিশ দিনব্যাপী এ আলোকচিত্র প্রদর্শনী চলবে আগামী ৩ মে ২০১৮ পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল সাড়ে দশটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত প্রদর্শনী খোলা থাকবে। শুক্র ও শনিবার দুপুর আড়াইটা থেকে রাত আটটা হচ্ছে প্রদর্শনীর সময়।



মন্তব্য