kalerkantho


ময়মনসিংহে 'যামিনীর শেষ সংলাপ' এর দ্বিতীয় মঞ্চায়ন শুক্রবার

সত্যজিৎ কাঞ্জিলাল   

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১১:৫১



৪৫ বছরের থিয়েটার জীবন। এই থিয়েটারের জন্য তিনি ছুঁড়ে ফেলেছেন তার সমস্ত ঐশ্বর্য; বিসর্জন দিয়েছেন নিষ্কণ্টক জীবন-প্রেম-পরিবার। নাটকই ছিল তার একমাত্র ভালোবাসা, জীবনের অনুসঙ্গ। সমাজ বদলের আদর্শিক পথ। অথচ ৪৫ বছরের ক্যারিয়ার শেষে ৬৮ বছরের বৃদ্ধ যামিনী ভূষণ রায় আজ নিঃস্ব, রিক্ত! অন্ধকার নাট্যমঞ্চে আজ তার অভিনয় দেখার কেউ নেই!

বাংলা নাট্যজগতের পথিকৃত যামিনী ভূষণ রায়ের দুঃখগাঁথা নিয়ে পাঁচ মাস পর আবারও ময়মনসিংহের মঞ্চ মাতাতে আসছে মমতাজউদ্দীন আহমেদের বিখ্যাত নাটক 'যামিনীর শেষ সংলাপ'। নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন তরুণ নির্দেশক চিন্ময় দেবনাথ।

আরও পড়ুন: ময়মনসিংহের মঞ্চ মাতাল 'যামিনীর শেষ সংলাপ'

ময়মনসিংহের জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে আগামীকাল ৯ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় মঞ্চায়িত হবে 'যামিনীর শেষ সংলাপ'। নাটকটিতে যামিনী ভূষণ রায়ের মুল চরিত্রে অভিনয় করে ইতিমধ্যেই তুমুল প্রশংসিত হয়েছেন ময়মনসিংহের খ্যাতিমান নাট্যজন মণিভূষণ ভট্টাচার্য্য। এছাড়া অনাদির ভূমিকায় অভিনয় করছেন প্রিয়ন্ত পাল। এছাড়া তরুণ যামিনী ভূষণের চরিত্রে অভিনয় করছেন মাহমুদুল হাসান। 

'মুক্তবাক থিয়েটার' এর প্রযোজনা ও পরিবেশনায় একক নাটকটিতে বেশ কিছু পরিবর্তন এনে নতুন করে সাজিয়েছেন নির্দেশক চিন্ময় দেবনাথ। দৃশ্যের প্রয়োজনে ব্যবহার করা হয়েছে প্রজেক্টর এবং প্রয়োজনীয় মঞ্চসজ্জা। সব মিলিয়ে সনাতনী গল্পের নাটক আর আধুনিক প্রযুক্তির দারুণ এক মিশেল।

আরও পড়ুন: মণিভূষণ ভট্টাচার্য; মঞ্চনাটক যার জীবন ও ভালোবাসা

পুরো নাটকজুড়েই নিভু নিভু পাদপ্রদীপের আলোয় জীবনের শেষ প্রান্তে দাঁড়িয়ে থাকা যামিনী ভূষণের কন্ঠে উঠে আসে নিমচাঁদ, সিরাজউদ্দৌলা, রঘুপতি, ম্যাকবেথ থেকে ইডিপাসের চরিত্ররা। উঠে আসে তার যৌবন, তার প্রেম। কেন আজ বৃদ্ধ রিক্ত বিধ্বস্ত যামিনী ভূষণ অন্ধকার মঞ্চে দাঁড়িয়ে হাহাকার করেন? এর কারণও আমরা খুঁজতে যাই না কখনো। মমতাজউদ্দিন আহমেদের 'যামিনীর শেষ সংলাপ' সেই উপাখ্যান, যা নাড়া দিয়ে যাবে মানবিকতাকে।



মন্তব্য