kalerkantho


'ভাষা সৈনিক ও শিক্ষাব্রতী প্রতিভা মুৎসুদ্দি' গ্রন্থের প্রকাশনা উৎসব

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ এপ্রিল, ২০১৭ ২১:০৩



'ভাষা সৈনিক ও শিক্ষাব্রতী প্রতিভা মুৎসুদ্দি' গ্রন্থের প্রকাশনা উৎসব

ভাষা সৈনিক ও একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রতিভা মুৎসুদ্দির কর্ম ও চেতনা নিয়ে হেনা সুলতানার রচিত ‘ভাষা সৈনিক ও শিক্ষাব্রতী প্রতিভা মুৎসুদ্দি’ গ্রন্থটির প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে বইটির প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম বলেন, ৫২’র ভাষা আন্দোলন এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক শিক্ষাব্রতী প্রতিভা মুৎসুদ্দি আমাদের ব্যক্তি, সমাজ ও রাষ্ট্রীয় জীবনচর্চায় অনন্ত প্রেরণার উৎস। শিক্ষা-সংষ্কৃতি, মানব কল্যাণ ও দেশপ্রেমে আলোকিত মানুষ গড়ার সাধনায় তাঁর নিরন্তন পথচলা আমাদের জন্য অনুকরণীয় আদর্শ।

মানবাধিকার কর্মী সুলতানা কামাল বলেন, একটি মানবিক ও আদর্শিক সমাজ বিনির্মাণে প্রতিভা মুৎসুদ্দির নিভৃতচারী ভূমিকা সবার কাছে তুলে ধরতে বইটি কাজে আসবে। বইটি সম্পাদনা করে হেনা সুলতানা আমাদের কৃতার্থ করেছেন। ভাষা সৈনিক প্রতিভা মুৎসুদ্দি গ্রন্ঞটি আমাদের সাহিত্য জগতে একটি গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন।

লেখক হেনা সুলতানা বলেন, ভাষা সৈনিক প্রতিভা মুৎসুদ্দির একটি পূর্ণাঙ্গ জীবনকথা লেখার তাগিদ আমার কাছে অনেকেই ব্যক্ত করেছেন। আমি নিজেও সেই তাগিদ অনুভব করি। পেশাগত জীবনে দীর্ঘ ৩০ বছর তাঁর সঙ্গে থাকার সৌভাগ্য আমার হয়েছে। সেই অভিজ্ঞতার আলোকে ভবিষ্যত প্রজন্ম যেন এই মহৎ মানুষটির জীবন ও কর্ম সম্পর্কে জানতে পারে এবং নিজেদের জীবন আলোকিত করতে পারে সেই তাগিদ থেকেই বইটি লেখার অনুপ্রেরণা পেয়েছি।

অনুষ্ঠানে ‘ভাষা সৈনিক ও শিক্ষাব্রতী প্রতিভা মুৎসুদ্দি’ গ্রন্থটি থেকে উল্লেখযোগ্য অংশ পাঠ করে শোনান বাচিক শিল্পী ডালিয়া আহমেদ। উপস্থাপনা করেন স্নিগ্ধা বড়ুয়া।

প্রকাশনা উৎসবের স্বাগত বক্তব্য পেশ করেন বইটির প্রকাশক ও সাহিত্য প্রকাশের কর্ণধার মফিদুল হক। অনুষ্ঠানের আয়োজক ছিলো চারুদেশ ইভেন্ট।


মন্তব্য