kalerkantho


মারা গেছেন কবি অরুণ সেন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ মার্চ, ২০১৬ ২০:০০



মারা গেছেন কবি অরুণ সেন

মারা গেছেন চট্টগ্রামের কবি, ছড়াকার ও সাহিত্য পত্রিকা ‘ঋতপত্র’র সম্পাদক কবি অরুণ সেন। আজ শনিবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

মৃত্যুকালে তিনি এক ছেলে, এক মেয়ে ও স্ত্রী রেখে গেছেন। চট্টগ্রামের সাহিত্য জগতের এক পরিচিত মুখ ছিলেন ৫৮ বছর বয়সী কবি অরুণ সেন।

কবি অরুণ সেনের ছোট ভাই বরুণ সেন জানান, শনিবার সকাল আটটার দিকে অসুস্থ বোধ করলে তাকে দ্রুত চট্টগ্রাম মেডিকেলে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা জানান, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে। দুপুর ১২টার দিকে কবি অরুণ সেনের মরদেহ তার নিত্যদিনের আড্ডাস্থল চেরাগী পাহাড় মোড়ে আনা হয়। এসময় তাকে শ্রদ্ধা জানাতে শিক্ষাবিদ, রাজনীতিবিদ, সংস্কৃতিকর্মী, সাংবাদিক, শিল্পী, কবি বন্ধুরা ও সাধারণ মানুষ সেখানে জড়ো হন। কবির মরদেহে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান একুশে পদকপ্রাপ্ত সমাজবিজ্ঞানী ড. অনুপম সেন, দৈনিক আজাদী সম্পাদক এম এ মালেক, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুস ছালাম, কমিউনিস্ট পার্টি চট্টগ্রামের সভাপতি মৃণাল চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম। শ্রদ্ধা জানায় বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে কবি অরুণ সেনের জন্মস্থান চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার অহ্ল্লা ধলঘাট এলাকা নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

সেখানেই তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হয়।

তার প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থগুলোর মধ্য রয়েছে, ‘শঙ্কায় নিনাদে শঙ্খ’, ‘বাইরে রেখে পা’, ‘শেষ বিকেলের কড়ানাড়া’, ‘রুদ্র গেছে রোদের বাড়ি’, ‘বুকে তার মুকুন্দরামের হাট’, ‘কে মানুষ পলাতক বুকে কাঁদে’, ‘ভালো আছো সোনালু ফুল’, ‘অনেক ভুলের প্রতিবেশী’, ‘অথচ নীরবতা’। এছাড়া শিশু কিশোরদের জন্য তার রচিত ‘ছড়ায় ছড়ায় কথার নাচন’ বেশ পাঠকপ্রিয় হয়েছে।


মন্তব্য