kalerkantho

জলঢাকায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদ্‌যাপিত

জলঢাকা (নীলফামারী) প্রতিনিধি   

২৭ মার্চ, ২০১৯ ০৫:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জলঢাকায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদ্‌যাপিত

ছবি: কালের কণ্ঠ

নীলফামারীর জলঢাকায় মঙ্গলবার নানান আয়োজনের মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদ্‌যাপিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে সূর্য উদয়ের সঙ্গে সঙ্গে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসটির আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। এবং উপজেলা প্রশাসন শহীদ বেদীতে প্রথম শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করে। পরে বিভিন্ন দপ্তর, রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠন শহীদ বেদীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করে। 

সকাল ৮টায় জলঢাকা শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে জাতীর বীর সন্তান মুক্তিযোদ্ধাদের লালগালিচা সংবর্ধনা শেষে জাতীয় সংগীতের সঙ্গে পতাকা উত্তোলন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সুজাউদ্দৌলা। এ সময় শান্তির প্রতীক পায়রা ওড়ানো হয়। 

পরে পুলিশ, আনছার ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের কুচকাওয়াজ শেষে ডিসপ্লে প্রদর্শন করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। পরে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। দুপুরে ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নতুন প্রজন্ম গড়ে তোল’ এই স্লোগানে তিস্তা খেলাঘর আসর জলঢাকা সংগঠনটি  মাছুমা আক্তার নয়নের সমন্বয়ে স্থানীয় শহীদ মিনারে কবিতা আবৃত্তি ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতার আয়োজন করে। সংগঠনটির সভাপতি আসাদুজ্জামান স্টালিনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সুজাউদ্দৌলা। এ সময় বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল গফফার, নাজমুল ইসলাম সুমন প্রমুখ।

পরে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদ উম্মুক্ত মঞ্চে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সুজাউদ্দৌলার সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনায় বক্তব্য রাখেন থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক সহিদ হোসেন রুবেল, পৌর আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক আব্দুল মজিদ, বনিক সমিতি সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র ইলিয়াস হোসেন বাবলু, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড আহবায়ক আসাদুজ্জামান স্টালিন প্রমুখ। 

পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে মুক্তিযুদ্ধের নাটিকা পরিবেশন করেন জলঢাকা থিয়েটার গ্রুপ।

মন্তব্য