kalerkantho

গণহত্যা দিবসে শেরপুরে আলোচনাসভা

শেরপুর প্রতিনিধি    

২৫ মার্চ, ২০১৯ ১৭:৪৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গণহত্যা দিবসে শেরপুরে আলোচনাসভা

গণহত্যা দিবস উপলক্ষে শেরপুরে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ সোমবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষ রজনীগন্ধায় অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর ও এদেশীয় দোসর আলবদর, রাজাকারদের গণহত্যার তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। তথ্যচিত্রে শেরপুরে নালিতাবাড়ীর সোহাগপুর বিধবাপল্লীর গণহত্যার বর্ণনাও তুলে ধরা হয়।

তথ্যচিত্র প্রদর্শন শেষে স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকার উপ-পরিচালক এ টি এম জিয়াউল ইসলাম। পরে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাতের গণহত্যা এবং মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে স্থানীয়ভাবে সংঘটিত গণহত্যার নানা বিষয়য়ে স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্য প্রদান করেন সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আ স ম নুরুল ইসলাম হিরু, মুক্তিযোদ্ধা তালাপতুফ হোসেন মঞ্জু, আ’লীগ নেতা ফখরুল মজিদ খোকন, সাংবাদিক দেবাশীষ ভট্টাচার্য।

ঝাউগড়া গণহত্যায় বাবা-চাচাসহ পরিবারের সদস্যদের শহীদ হওয়ার কাহিনী বর্ণনা করে বিভীষিকাময় দিনগুলোর স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন শহীদ পরিবারের সন্তান অধ্যাপক শিব শংকর কারুয়া শিবু। সাংবাদিক আব্দুর রহিম বাদল শেরপুর জেলার মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবাহী স্থান সংরক্ষণ এবং গণহত্যা সংঘঠিত হওয়ার স্থানগুলোতে স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করে সংরক্ষণের দাবি জানান।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমান শাওনের সঞ্চালনায় আলোচনাসভায় অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন সওজ নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান কবীর চৌধুরী, জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান সামছুন্নাহার কামাল, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আশরাফ উদ্দিন প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব ২৫ মার্চকে মানব সভ্যতার ইতিহাসে একটি কলঙ্কজনক হত্যাযজ্ঞের দিন উল্লেখ করে সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। আলোচনা সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জন কেনেডি জাম্বিল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) এ বি এম এহছানুল মামুন, সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক ও সুধীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।   

মন্তব্য