kalerkantho

নোয়াখালীতে দুই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক, নোয়াখালী   

২৪ মার্চ, ২০১৯ ১৫:০৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নোয়াখালীতে দুই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

নোয়াখালীর চাটখিল ও কবিরহাট উপজেলার পৃথক স্থান থেকে আকলিমা আক্তার কাকুলি (২৫) ও সামছুন নাহার সাকি (৩৫) নামের দুই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে আকলিমা আক্তার কাকুলিকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ করেছে তার পরিবার। এ ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী পলাতক রয়েছে। আজ রবিবার সকালে ও দুপুরে নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। 

নিহতরা হলেন- চাটখিল উপজেলার নোয়াখলা ইউনিয়নের সাতরাপাড়া গ্রামের মামুন হোসেনের স্ত্রী ও সোনাইমুড়ী উপজেলার দেওটি ইউনিয়নের আব্দুল কাদেরের মেয়ে আকলিমা আক্তার কাকুলি এবং কবিরহাট উপজেলার ধানসিঁড়ি ইউনিয়নের নলুয়া গ্রামের আব্দুস সাত্তারের স্ত্রী সামছুন নাহার সাকি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে,  গতকাল শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে কাকুলিদের ঘর থেকে ছটপটের শব্দ পেয়ে বাড়ির লোকজন ঘরে গিয়ে কাকুলির লাশ পড়ে থাকতে দেখে। পরে বিষয়টি থানায় অবগত করলে রাত ৩টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে। নিহতের পরিবারের অভিযোগ, কাকুলিকে মারধরের পর গলা টিপে হত্যা করা হয়েছে।

চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সামছুদ্দিন জানান, নিহতের শরীরের কয়েকটি স্থানে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে হত্যার অভিযোগ করলেও ময়নাতদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে।

অপরদিকে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামীর সাথে ঝগড়া করে কিটনাশক পান করে মারা গেলেন সামছুন নাহার সাকি নামের এক গৃহবধূ। পরে পরিবারের লোকজন তাকে দ্রুত উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। আজ রবিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। গতকাল শনিবার দুপুরে কবিরহাট উপজেলার নলুয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

কবিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মির্জা মোহাম্মদ হাছান জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

মন্তব্য