kalerkantho

চুয়াডাঙ্গায় বসুন্ধরা সিমেন্টের রাজমিস্ত্রী কর্মশালা

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি   

১৯ মার্চ, ২০১৯ ১৮:৫০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চুয়াডাঙ্গায় বসুন্ধরা সিমেন্টের রাজমিস্ত্রী কর্মশালা

নির্মাণ শিল্পে নির্মাণ শিল্পীদের দক্ষতা ও সচেতনতাকে এগিয়ে নিতে ‘শৈল্পিক নির্মাণ, রাজমিস্ত্রির অবদান’ শীর্ষক এক কর্মশালার আয়োজন করে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা সিমেন্ট।

আজ মঙ্গলবার চুয়াডাঙ্গার পুলিশ পার্ক কমিউনিটি সেন্টার অ্যান্ড চাইনিজ রেস্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় ৬০ জন রাজমিস্ত্রী অংশগ্রহণ করেন। 

অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী স্থানীয় সুপরিচিত রাজমিস্ত্রীরা বসুন্ধরা সিমেন্ট ব্যবহার করে তাদের বাস্তব কাজের অভিজ্ঞতা ও তাদের নির্ভরতার কথা উল্লেখ করেন।

অনুষ্ঠানে স্থাপনা নির্মাণ কৌশল এবং নির্মাণ সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ উপস্থাপন করেন চুয়াডাঙ্গার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আশরাফুল ইসলাম। বসুন্ধরা সিমেন্টের পক্ষে বাড়ি নির্মাণ সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় উপস্থাপন করেন ইঞ্জিনিয়ার মাহবুবুর রহমান এবং ইঞ্জিনিয়ার আবুল হাসান।

বক্তারা বলেন, ধারাবাহিক গুণগত মানের জন্য বর্তমানে দেশের সবচেয়ে আইকনিক প্রকল্প পদ্মা সেতু নির্মাণ প্রকল্প, পদ্মা সেতু নদী শাসন প্রকল্প, পদ্মা সেতুর এপ্রোচ রোড, মেট্রো রেল প্রকল্প, মাতারবাড়ি বিদ্যুত প্রকল্প, পদ্মা সেতুর রেল সংযোগ প্রকল্প, পায়রা সেতু প্রকল্প, কালনা সেতু প্রকল্প, রামপাল বিদ্যুত প্রকল্পের মত বড় স্থাপনাগুলোতে ব্যবহৃত হচ্ছে বসুন্ধরা সিমেন্ট।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চুয়াডাঙ্গার সুগন্ধা ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী হাজী মোহাম্মদ আবুল কালাম। প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আশরাফুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন বসুন্ধরা সিমেন্টের যশোর অঞ্চলের ডেপুটি ম্যানেজার মো. হাফিজুর রহমান। কুষ্টিয়া অঞ্চলের মো. জাফরুল ইসলাম এএসএম ও চুয়াডাঙ্গার সুগন্ধা ট্রেডার্সের মেহফুজুর রহমান মানিক।

পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন চুয়াডাঙ্গার মো. মুঞ্জুর কবির টিএসই। অনুষ্ঠানে শেষপর্বে রাজমিস্ত্রীদের মধ্যে র‌্যাফেল ড্র আয়োজন করা হয়। আমন্ত্রিত সকল রাজমিস্ত্রীকের উপহার প্রদান করা হয়। শেষে মধ্যান্ন ভোজের মাধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শেষ হয়।   

মন্তব্য