kalerkantho


ইন্দুরকানীতে নৌকার মনোনয়ন পেতে চার প্রার্থীর দৌড়ঝাঁপ

জে আই লাভলু, ইন্দুরকানী (পিরোজপুর)    

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৮:৪৭



ইন্দুরকানীতে নৌকার মনোনয়ন পেতে চার প্রার্থীর দৌড়ঝাঁপ

আসন্ন পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে চেয়ারম্যান পদে আলোচনায় উঠে এসেছে এক ডজন প্রার্থীর নাম। এঁদের মধ্যে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের অনুসারী প্রায় অর্ধেকেরও বেশি। তবে শেষমেষ দলীয় মনোনয়ন পেতে চারজন প্রার্থী জোরালো লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন কেন্দ্রে।

এঁরা হলেন উপজেলা আওয়ামী লীগ বর্তমান সভাপতি অ্যাড. এম মতিউর রহমান, থানা আওয়ামী লীগের সাবেক আহ্বায়ক ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোবারেক আলী হাওলাদার, পিরোজপুর জেলা পরিষদ সদস্য ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আবুল কালাম আজাদ ইমরান এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামান সেলিম।

এঁদের মধ্যে জেলা পরিষদ সদস্য ইমরান এলাকায় এখন পর্যন্ত কোনো রকম গণসংযোগ বা প্রচারণায় নামেননি। বাকি তিনজন কেন্দ্রে লবিং চালানোর পাশাপাশি মাঠেও নিয়মিত গণসংযোগে চালিয়ে যাচ্ছেন।

এদিকে, দলের সবুজ সংকেত পেতে নিজ নিজ দলের জেলা নেতৃবৃন্দ ও সংশ্লিষ্ট আসনের এমপির সমর্থন লাভসহ কেন্দ্রীয় নীতি নির্ধারকদের কাছে ছুটছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। পাশাপাশি মাঠপর্যায়ের কর্মী-সমর্থক ছাড়াও সাধারণ ভোটারদের কাছে নিজেদের ইমেজ বাড়াতে জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁরা।

ফেসবুকে স্ট্যাটাস, পোস্টার,ব্যানার, গণসংযোগ ও মতবিনিময়ের মাধ্যমে প্রার্থিতার বিষয়ে জানান দিচ্ছেন এসব সম্ভাব্য প্রার্থীরা।

এদিকে, বিএনপি অনুসারীদের এ নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করার ব্যাপারে কেন্দ্র থেকে দলের কঠোর নিষেধাজ্ঞা থাকায় সাধারণ ভোটারদের মুখে আলোচনা শুধু আওয়ামী লীগ ও মহাজোটের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আগামী ৩১ মার্চ চতুর্থ ধাপে অনুষ্ঠিত হবে ইন্দুরকানী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। তিনটি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত এ উপজেলায় এক এক প্রার্থীকে নিয়ে চলছে এলাকাভিত্তিক ভোটের আগাম হিসেব নিকাশ। মাঠ জরিপে দলীয় ফোরাম এবং তৃণমূলের সাধারণ ভোটারদের মুখে আলোচনা বেশি ক্লিন ইমেজের মনোনয়ন প্রত্যাশী মোবারেক আলী হাওলাদার এবং আওয়ামী লীগ নেতা মনিরুজ্জামান সেলিম নিয়ে। তবে দলের বর্তমান সভাপতি হওয়ার সুবাধে এম মতিউর রহমান মনোনয়ন পাওয়ার দৌড়ে অনেকটা এগিয়ে থাকবনে বলে ধারণা অনেকের। ২৩ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্র থেকে চূড়ান্ত ঘোষণা হতে পারে চতুর্থ ধাপের নির্বাচনে মনোনীত প্রার্থী। তবে শেষমেষ মোবারেক আলী হাওলাদার কিংবা মতিউর রহমানের কপালে জুটতে পারে নৌকার টিকিট এমনটিই ধারণা আওয়ামী লীগের অনেক স্থানীয় নেতাকর্মী, সমর্থক ও সাধারণ ভোটারদের।

নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী চেয়ারম্যান প্রার্থী মোবারেক আলী হাওলাদার বলেন, সন্ত্রাস, দুর্নীতি, মাদকমুক্ত, এলাকায় ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠাসহ ইন্দুরকানীকে একটি মডেল উপজেলা গড়াই আমার আসল অঙ্গীকার। তাই সার্বিক দিক বিবেচনা করে কেন্দ্র আমাকেই দলের মনোনয়ন দেবে বলে বিশ্বাস করি। আর নৌকার মনোনয়ন পেলে আমি বিপুল ভোটে বিজয়ী হবো বলে প্রত্যাশা রাখি।

চেয়ারম্যান প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা মনিরুজ্জামান সেলিম বলেন, আওয়ামী লীগের জন্মলগ্ন থেকে আমার পরিবার আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে  জড়িত। আমি সুখে, দুখে এলাকাবাসীর এবং দুর্দিনে দলীয় নেতাকর্মীর খোঁজখবর নিয়েছি। তাই আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি বিপুল ভোটে জয়লাভ করব।  



মন্তব্য