kalerkantho


বগুড়ায় দরপত্র ছাড়া জমি বিক্রি

লতিফ সিদ্দিকীসহ দুজনের নামে অভিযোগপত্র

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া   

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০২:৫১



লতিফ সিদ্দিকীসহ দুজনের নামে অভিযোগপত্র

বগুড়ায় দরপত্র ছাড়াই সরকারি পাটকলের প্রায় আড়াই একর জমি বিক্রির মামলায় সাবেক বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীসহ দুজনের নামে অভিযোগপত্র দাখিল করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। 

গতকাল সোমবার বগুড়ার আদমদীঘি থানার আমলি আদালতে এই অভিযোগপত্র জমা দেন দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম।

দুদক কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম জানান, আদমদীঘির দারিয়াপুর মৌজায় বাংলাদেশ জুট করপোরেশনের ২ দশমিক ৩৮ একর জমি একসময় সরকারি ‘পাট ক্রয়কেন্দ্র’ হিসেবে ব্যবহার করা হতো। ২০১২ সালের ৩০ ডিসেম্বর দরপত্র ছাড়াই পরিত্যক্ত ওই সরকারি জমি বিক্রির উদ্যোগ নেন তত্কালীন বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী। মন্ত্রী তাঁর পূর্বপরিচিত বগুড়া শহরের কাটনারপাড়া এলাকার হারুন অর রশিদের স্ত্রী জাহানারা রশিদের কাছে মাত্র ২৩ লাখ টাকায় ওই জমি বিক্রি করেন। অথচ ওই জমির বাজারমূল্য প্রায় ৬৪ লাখ টাকা। এ অভিযোগে আদমদীঘি থানায় দায়ের করা মামলার তদন্তভার দুদককে দেওয়া হয়। 

দুদকের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম আরো জানান, তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে এই জমি অবৈধভাবে বিক্রিতে সরকারের ৪০ লাখ ৭০ হাজার টাকার আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। তদন্ত শেষে সাবেক মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকী ও জমির ক্রেতা জাহানারা রশিদকে অভিযুক্ত করে গতকাল আদমদীঘি থানার আমলি আদালতে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়েছে।



মন্তব্য