kalerkantho


মঠবাড়িয়ায় সংখ্যালঘুর ওপর হামলা চালিয়ে জমি দখলের অভিযোগ

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, পিরোজপুর   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০৪:৪৫



মঠবাড়িয়ায় সংখ্যালঘুর ওপর হামলা চালিয়ে জমি দখলের অভিযোগ

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় হিন্দু পরিবারের সাত সদস্যকে পিটিয়ে অবরুদ্ধ করে প্রতিপক্ষরা জমি দখল করে নিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তারা ওই জমিতে ঘরও তুলে দিয়েছে। গতকাল শনিবার ভোর ৫টার দিকে উপজেলার সাপলেজা ইউনিয়নের ঝাটিবুনিয়া গ্রামে এ হামলার ঘটনা ঘটে। প্রতিপক্ষের হামলায় আহতদের মধ্যে চারজন নারীও আছে। তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। হিন্দু পরিবারটির সঙ্গে ওই জমি নিয়ে প্রতিপক্ষের বিরোধ চলছিল। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ কালাম মোল্লা (৪৫) নামে উপজেলা যুবলীগের এক নেতাকে আটক করেছে।

আহতরা হলেন রেণু বালা (৬৫), স্বপন হাওলাদার (৫৫), সাথী রানী (২৮), হাসি রানী (৩২), মাধবী রানী (৩০) খোকন হাওলাদার (৪৫) পীযূষ হাওলাদার (৩৫)।

আহত পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সাপলেজা ইউনিয়নের ঝাটিবুনিয়া গ্রামের সন্তোষ হাওলাদারের পরিবারের সঙ্গে একই গ্রামের শাহজাহান মাতবরের দীর্ঘদিন ধরে জমির মালিকানা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে গতকাল ভোররাতে প্রতিপক্ষ শাহজাহানের নেতৃত্বে ৫০ থেকে ৬০ জন লাঠিসোঁটা ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে সন্তোষ হাওলাদারের বাড়িতে হামলা চালায়। তারা পরিবারটিকে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। হামলাকারীরা ওই পরিবারের ঘরের মালামাল তছনছ করে। পরে ওই পরিবারটিকে আহত অবস্থায় ঘরে অবরুদ্ধ করে রেখে বিরোধপূর্ণ জমিতে ঘর তুলে দখল নেয়। 

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিরাজ মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, হামলার খবর পেয়ে থানার পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে যান তিনি। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে প্রতিপক্ষরা পালিয়ে যায়। পরে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ছাড়া দখলে নেওয়া জমির ঘর অপসারণ করা হয়। 

এ ব্যাপারে প্রতিপক্ষ শাহজাহান মাতবর ওই জমির ওয়ারিশ রণজিত্, বাবুল ও প্রমথদের কাছ থেকে ক্রয়সূত্রে ওই জমির মালিকানা দাবি করে বলেন, হামলা-লুটপাটের ঘটনা মিথ্যা ও হয়রানিমূলক।

এ বিষয়ে মঠবাড়িয়া থানার ওসি মো. শওকত আনোয়ার বলেন, জমিসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে একজনকে আটক করা হয়েছে।

মঠবাড়িয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসান মোস্তফা স্বপন সরেজমিন পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের জানান, হামলার ঘটনাটি অমানবিক। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



মন্তব্য