kalerkantho


কেরানীগঞ্জে চার ইটভাটাকে ৪০ লাখ টাকা জরিমানা

কেরানীগঞ্জ (ঢাাকা) প্রতিনিধি   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০১:৫০



কেরানীগঞ্জে চার ইটভাটাকে ৪০ লাখ টাকা জরিমানা

ছবি: কালের কণ্ঠ

কেরানীগঞ্জে ৪টি অবৈধ ইটভাটাকে  ৪০ লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরিবেশ অধিদপ্তরের উদ্যোগে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে কোন্ডা ইউনিয়নের মোল্লারহাট ও জাজিরা এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হয়। পরিবেশ অধিদপ্তরের মনিটরিং এন্ড এনফোর্সমেন্ট উইং শাখার এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট কাজী তামজীদ আহমেদ এই ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের নেতৃত্ব দেন। পরিবেশের ছাড়পত্র, জেলা প্রশাসকের লাইসেন্সসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় মোল্লারহাট এলাকায় মেসার্স মোল্লা ব্রিকস, মেসার্স এম,এইচ এন্ড কোং, জাজিরা এলাকায় মেসার্স নিউ ব্রিকস এবং এ বি এম ব্রিকস নাামে ৪টি ইটভাটাকে ৪০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। 

এদের মধ্যে মোল্লা ব্রিকস ও এম এইচ এন্ড কোং ব্রিকসকে ১১ লাখ টাকা করে ২২ লাখ টাকা এবং  নিউ ব্রিকসকে ৮ লাখ টাকা এবং এ বি এম ব্রিকসকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। মেসার্স নিউ ব্রিকস, মেসার্স এম.এইচ এন্ড কোং ব্রিকস দুইটির ইটভাটাকে ভেকু দিয়ে আংশিক ভেঙ্গে ফেলা হয় এবং মোল্লা ব্রিকসসহ ওই তিনটি বিকসের ইটভাটায় ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি থেকে পানি দিয়ে ভিজিয়ে দেয়া হয়। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পরিবেশ অধিদপ্তরের ঢাকা অঞ্চলের ডিডি মো. আল-আমিন, সহকারী পরিচালক (প্রচার) সমর দাস কৃষ্ণ, পরিবেশ অধিদপ্তর ঢাকা জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক খালেদ হাসান, সহকারী পরিচালক শরিফুল ইসলাম ও মিহির লাল সরদার। 

মোল্লা ব্রিকসের মালিক মুসলিম উদ্দিন মোল্লা জানান, আমরা ইটভাটার প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অফিসে জমা দিয়েছি। পরিবেশ অধিদপ্তর আগে আমাদেরকে সতর্ক করলে আমরা এতো ক্ষতির সম্মুখীন হতাম না। পরিবেশ অধিদপ্তরের মনিটরিং এন্ড এনফোর্সমেন্ট উইং শাখার এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট কাজী তামজীদ আহমেদ বলেন, কেরানীগঞ্জের জাজিরা ও মোল্লারহাট এলাকায় ইটভাটাগুলো অবৈধভাবে চলে আসছিল। তাদের বৈধ কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেনি এমনকি তাদের কোনো লাইসেন্সও নেই। তাই তাদেরকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে আরো ইটভাটায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালানো হবে। 



মন্তব্য