kalerkantho


ফুলবাড়িয়ায় যৌন হয়রানিতে বাধা দেওয়ায়

প্রধান শিক্ষককে মারধরের বিচার চেয়ে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

ফুলবাড়িয়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২২:১০



প্রধান শিক্ষককে মারধরের বিচার চেয়ে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া হরেকৃষ্ণ উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের যৌন হয়রানি করায় বাধা দেওয়ায় প্রধান শিক্ষক গোলাম রব্বানিকে পিটিয়েছে বখাটেরা। স্কুলের ছাত্ররা বখাটেদের হাত থেকে শিক্ষককে রক্ষা করতে গিয়ে ৫ শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। এ সময় নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী আমজাদ হোসেন বাম হাত ভেঙে ফেলে।

এ ঘটনায় আজ মঙ্গলবার ফুলবাড়িয়ায় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে সহকারী প্রধান শিক্ষক সংগ্রাম চন্দ্র পাল। মেয়েদের যৌন হয়রানি, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের পেটানোর ঘটনায় জড়িদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে সকালে দেওখেলা বাজারে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন করেছে বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধন শেষে ফুলবাড়িয়া-ময়মনসিংহ সড়কে গাছ ফেলে প্রায় এক ঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে রাখে শত শত শিক্ষার্থী। এ সময় সড়কে উভয় পাশে দুই কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়। ভোগান্তীতে পড়ে যানবাহনের যাত্রীরা। পরে ময়মনসিংহ জেলা পরিষদ সদস্য ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো. তাজুল ইসলাম বাবলু ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার ব্যবস্থা করানো হবে বলে শিক্ষার্থীদের আশ্বাস বিদ্যালয়ে ফিরে যায় তারা।

শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, সোমবার হরেকৃষ্ণ উচ্চ বিদ্যালয় বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার মহড়া (প্রস্তুতি) অনুষ্ঠান চলছিল। দুপুরে একদল বখাটে ছেলে স্কুলে গিয়ে মেয়েদেরকে যৌন হয়রানি করে। কয়েকজন ছাত্রী বিষয়টি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে জানালে তিনি গিয়ে বখাটেদের বাধা দেয় ও বিদ্যালয় থেকে বের হয়ে যেতে বলেন। এ সময় বখাটেরা প্রধান শিক্ষককে বিদ্যালয় মাঠে মারতে দেখলে অন্যান্য শিক্ষক শিক্ষার্থী ছুটে আসলে তাদেরকে মারপিট করে চলে আসে। বখাটেদের ইটের আঘাতে গুরুতর আহত প্রধান শিক্ষক গোলাম রব্বানিকে ঐদিন ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপতালে ভর্তি করা হলে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় ঢাকার একটি হাসপতালে স্থানান্তর করা হয়।

সহকারী প্রধান শিক্ষক সংগ্রাম চন্দ্র পাল বলেন, বিদ্যালয়ের মেয়েদের উত্ত্যক্ত করার বাধা দেওয়ায় স্যার (প্রধান শিক্ষক) ও শিক্ষার্থীদের ১৫/২০ জনের বখাটের দল মারপিট করার প্রতিবাদে ও জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবিতে মানববন্ধন ও সড়ক অবরোধ করে শিক্ষক শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।

সভাপতি মো. তাজুল ইসলাম বাবলু বলেন, ফুলবাড়িয়া থেকে একদল বখাটে ছেলেরা এসে মেয়েদের যৌন হয়রানি ও শিক্ষক শিক্ষার্থীর মারপিট করার ঘটনাটি স্থানীয় সংসদ সদস্য মো, মোসলেম উদ্দিন ও ফুলবাড়িয়া থানার ওসিকে জানানো হয়েছে। এ ঘটনায় সহকারী প্রধান শিক্ষককে মামলা করতে বলা হয়েছে।

ফুলবাড়িয়া থানা অফিসার ইনচার্জ শেখ কবিরুল ইসলাম বলেন, মানববন্ধনে বিষয়টি শুনেছি। অভিযোগের ঘটনাটি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



মন্তব্য