kalerkantho


কুমিল্লায় মতবিনিময় সভায়

সরকারি গাড়ি চাইলেন ইউপি চেয়ারম্যানরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

২০ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৮:৫৭



সরকারি গাড়ি চাইলেন ইউপি চেয়ারম্যানরা

কুমিল্লার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান, সচিব ও উদ্যোক্তাদের সাথে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ রবিবার বিকেল তিনটায় নগরীর বীরচন্দ্র নগর মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কুমিল্লার জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর।

মতবিনিময় সভায় অংশ নেওয়া জেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, ইউপি সচিব ও উদ্যোক্তারা তাদের প্রত্যাশা-প্রাপ্তির কথা জানিয়েছেন। এ সময় তারা ইউনিয়ন পরিষদকে রাষ্ট্রের অন্যতম প্রশাসনিক কার্যালয় উল্লেখ করে বলেন, একজন নাগরিককে সর্বপ্রথম রাষ্ট্রীয় ও নাগরিক সুবিধার জন্য ইউনিয়ন পরিষদ তথা চেয়ারম্যানের কাছে আসতে হয়। একজন চেয়ারম্যান দৈনিক ১২ থেকে ১৫ ঘণ্টা কাজ করেন। তার এলাকার প্রতিটি স্কুল, কলেজ, মসজিদ, মাদরাসা, সংগঠন, মহল্লা ও পরিবার দেখাশোনা ও পর্যবেক্ষণের জন্য চেয়ারম্যানকে যেত হয় স্বশরীরে। এর জন্য তিনি নিজস্ব টাকা খরচ করে পরিবহন ব্যবহার করেন। কখনো বা যেতে হয় পায়ে হেঁটে। তাই চেয়ারম্যানের দৈনন্দিন কাজের নানা ব্যাঘাত ঘটে ও সময় ক্ষেপণ হয়। তাই চেয়ারম্যানরা স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের কাছে সরকারি বরাদ্দের মাধ্যমে গাড়ির দাবি জানান এবং তারা সরকারের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে সকল দাপ্তরিক কাজের সহযোগিতা কামনা করেন।

ইউপি চেয়ারম্যানদের এসব দাবি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে উল্লেখ করে জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর বলেন, তৃণমূল পর্যায়ে নাগরিক সুবিধা প্রাপ্তির প্রথম স্থান হলো ইউনিয়ন পরিষদ। একটি শিশু জন্মের পর প্রথম ইউনিয়ন পরিষদের জন্ম নিবন্ধনের মাধ্যমে নাগরিক প্রক্রিয়া শুরু করে। এবং মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত নাগরিক সুবিধার জন্য প্রথমে তাকে ইউনিয়ন পরিষদেই যেতে হয়। তাই নাগরিক সুবিধা প্রাপ্তির প্রতম স্থান ইউনিয়ন পরিষদ রাষ্ট্রীয় কাঠামোতে অতীব অগুরুত্বপূর্ণ।

মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন স্থানীয় সরকার কুমিল্লার উপ পরিচারক মোহাম্মদ আজিজুর রহমান। মতবিনিময় সভায় এলজিএসপি-৩ কুমিল্লার ডিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর রিয়াদ উদ্দিন সরকার ও  সকল উপজেলা নির্বাহী অফিসার, ইউপি চেয়ারম্যান, ইউপি সচিব ও ১৯৪ জন উদ্যোক্তা অংশগ্রহণ করেন।



মন্তব্য