kalerkantho


পঞ্চগড়ে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

পঞ্চগড় প্রতিনিধি   

১২ জানুয়ারি, ২০১৯ ২১:৪৮



পঞ্চগড়ে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

পঞ্চগড়ে পৃথক ৩টি সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো পাঁচজন। এদের মধ্যে গুরুতর আহত তিনজনকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। অন্যদের পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আজ শনিবার সন্ধ্যায় জেলার বিভিন্ন এলাকায় দুর্ঘটনাগুলো ঘটে।

নিহতরা হলেন-ট্রাক্টর চালক মনসুর আলী (৪২) এবং হেলপার ছত্রিশ চন্দ্র (৩৮)। এদের মধ্যে চালকের বাড়ি মিঠাপুকুর এলাকায়। তিনি ওই এলাকার মকবুল হোসেনের ছেলে। আর ছত্রিশের বাড়ি বোদা উপজেলার ময়দানদিঘী ইউনিয়নের ভিমপুকুর এলাকায়। তিনি ওই এলাকার আলসিয়ার ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, জেলার বোদা উপজেলার পঞ্চগড়-ঢাকা মহাসড়কের পাইকপাড়া এলাকায় (জেমজুটের সামনে) ইট বোঝাই একটি ট্রাক্টরের সামনের চাকা খুলে যায়। এতে ট্রাক্টরটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশের একটি পুকুরে উল্টে যায়। এ সময় ট্রাক্টর ও ইটের চাপায় চালক মনছুর আলী (৪২) এবং হেলপার ছত্রিশ চন্দ্র (৩৮) ঘটনাস্থলেই মারা যায়। খবর পেয় বোদা ও পঞ্চগড় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতদের লাশ উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। ট্রাক্টরটি স্থানীয় একটি ইটভাটা থেকে ইট নিয়ে পঞ্চগড় আসছিল।

অপরদিকে একইদিনে পঞ্চগড় শহরের ব্যারিষ্টার বাজার নামক স্থানে ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী আব্দুস সালাম (৪৫), তার স্ত্রী মুন্নী আখতার (৩৮) গুরুতর আহত হয়। তাদের প্রথমে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতাল ও পরে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। 

এছাড়া জেলার সদর উপজেলার সাতমেরা ইউনিয়নের ময়নাগুড়ি এলাকায় ট্রাকের ধাক্কায় তিন ভ্যান যাত্রী আহত হন। তাদের উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে স্থানীয়রা। 

আহতদের মধ্যে তছিরুল ইসলাম (৪৫) নামে এক ব্যক্তির অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয় বলে জানা গেছে।

এসব দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন হতাহতদের দেখতে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতাল পরিদর্শন করেছেন। নিহতদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য প্রদানের আশ্বাস জানিয়ে দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখার ঘোষণা দেন তিনি।



মন্তব্য