kalerkantho


নিখোঁজের এক সপ্তাহ পর শিশুর লাশ উদ্ধার

চাঁদপুর প্রতিনিধি   

১০ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৪:২৩



নিখোঁজের এক সপ্তাহ পর শিশুর লাশ উদ্ধার

চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণে নিখোঁজের এক সপ্তাহ পর ৭ বছরের এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার সকালে উপজেলার আশ্বিনপুর গ্রামের জনৈক তাজুল ইসলামের সেপটিক ট্যাংক থেকে সাব্বির হোসেন নামে এই শিশু লাশ উদ্ধার হয়। 

শিশুটি নিখোঁজ ও হত্যার ঘটনায় চাচা জামাল হোসেন ও প্রতিবেশী সজিব মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ। মূলত টাকার লোভে আপন চাচা শিশুটিকে নির্মমভাবে হত্যা করে।

পুলিশ ও পরিবারের সদস্যরা জানান, প্রবাসী মাসুদ রানার ছেলে সাব্বির হোসেন (৭) গত ৩ ডিসেম্বর বিকেলে বাড়ির পাশে অন্যদের সঙ্গে খেলতে যায়। এ সময় তার ছোট চাচা জামাল হোসেন চকলেটের লোভ দেখিয়ে শিশুটিকে নিয়ে যান। পরে শিশুর বাবা প্রবাসী মাসুদ রানাকে জানান, সাব্বির নিখোঁজ হয়ে গেছে। তাকে খুঁজে পেতে টাকা প্রয়োজন। এমন পরিস্থিতিতে নগদ ১০ হাজার টাকা দেবর জামালের হাতে তুলে দেন শিশু সাব্বিরের মা শাহীনা আক্তার। কিন্তু কয়েকদিন পার হলেও নিখোঁজ সাব্বিরকে খুঁজে দিতে ব্যর্থ হয় জামাল।

একপর্যায়ে পরিবারের পক্ষ থেকে শিশু নিখোঁজের অভিযোগ দেওয়া হয় থানায়। এর প্রেক্ষিতে চাচা জামাল হোসেনকে আটক করে পুলিশ। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে সোমবার ভোরে প্রতিবেশী তাজুল ইসলামের সেপটিক ট্যাংক থেকে শিশু সাব্বিরের অর্থগলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

মতলব দক্ষিণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল হোসেন জানান, এই ঘটনায় জড়িত হতভাগা শিশু সাব্বিরের চাচা জামাল হোসেন এবং তার সহযোগী সজিব মিয়াকে আটক করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, মূলত টাকার লোভে আপন ভাতিজাকে জিম্মি করে জামাল। পরে শিশুটিকে শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশ টয়লেটের সেপটিক ট্যাংকে গোপন করে।

এই ঘটনায় শিশু সাব্বির হোসেনের মা শাহীনা আক্তার বাদী হয়ে মতলব দক্ষিণ থানায় একটি হত্যা মামলা করেছেন। 



মন্তব্য