kalerkantho


সিলেট-২ আসনে নৌকা, না লাঙ্গল?

বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি    

২০ নভেম্বর, ২০১৮ ১১:২৯



সিলেট-২ আসনে নৌকা, না লাঙ্গল?

সিলেট-২ (বিশ্বনাথ-ওসমানীনগর) আসনে আওয়ামী লীগে অভ্যন্তরীণ কোন্দল রয়েছে। আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছয়জন। বর্তমানে আসনটি জাপার দখলে।

গত নির্বাচনে এই আসনে সংসদ সদস্য হন জাপার ইয়াইয়াহ চৌধুরীর এহিয়া। আগামী জাতীয় নির্বাচনে আসনটি আওয়ামী লীগের হাতে থাকছে, না-কি জাপা  (এরশাদ) জোটে গেলে জাপাকেই ছেড়ে দেওয়া হবে- তা নিয়েই মূলত আলোচনা রয়েছে এলাকার ভোটাদের মধ্যে।

এবার এই আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছয়জনের মধ্যে দুইজন আলোচনায়। মহাজোটের প্রার্থী নিয়ে এলাকায় এখন যত আলোচনা।

আলোচিতরা হলেন বর্তমান সংসদ সদস্য ও কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টি যুগ্ম মহাসচিব ইয়াইয়াহ চৌধুরী এহিয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরী এবং যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী। 

শফিক চৌধুরী ও আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী ইতিমধ্যে দলীয় মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন। তবে মনোনয়ন নিয়ে সরকারদলীয় এই সংগঠনটির কোন্দল আরো বাড়তে পারে বলে মনে করছেন স্থানীয় রাজনীতিকরা।

উপজেলা আওয়ামী লীগ দুটি বলয়ে বিভক্ত। একটি শফিক চৌধুরীকে নিয়ে, অপরটি আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীকে নিয়ে। উপজেলায় শফিক চৌধুরী বলয়ে নেতৃত্বে দিচ্ছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পংকি খান ও আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর বলয়ের নেতৃত্বে রয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ভারপ্রাপ্ত ফারুক আহমদ।

সিলেট-২ আসনে যেন আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে মনোনয়ন দেওয়া হয় এই ইস্যুতে কেন্দ্রীয় ও জেলা আওয়ামী লীগের নেতারা একই সুরে বিভিন্ন সভা-সমাবেশ ও গণমাধ্যমে বক্তব্য দিচ্ছেন। তাঁরা বলছেন, সিলেট-২ আসন আওয়ামী লীগের শক্তিশালী সংগঠন রয়েছে। এই আসন শরিকদের দেওয়া যাবে না।

অপরদিকে, জোটের শরিক দল জাপা। তাঁদের বিশ্বাস এ আসন ফের জাতীয় পার্টিকে দেওয়া হবে। এমন বিশ্বাস নিয়ে তাঁরাও লাঙল প্রতীকে ভোট চাইতে শুরু করেছেন। জোটগতভাবে নৌকা না লাঙল প্রতীক নিয়ে এ আসনে নির্বাচন হবে তা এখনো বলা মুশকিল।

আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী কিংবা জোটের শরিক জাপাকে এই আসন ছেড়ে দেওয়া হলেও আওয়ামী লীগের বিভক্তির অবসান না হলে সুবিধাজনক অবস্থানে থাকবে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটের প্রার্থী।

গতবারের মতো এবারো সিলেট-২ আসনে কে মনোনয়ন পাবেন আওয়ামী লীগের দলীয় টিকেট তা নিয়ে চলছে ব্যাপক আলোচনা। কে হবেন সিলেট-২ আসনের নৌকার কাণ্ডারি?

দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কার হাতে নৌকার দায়িত্ব দেন। নাকি গত নির্বাচনের মতো সমঝোতার মাধ্যমে জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব ও বর্তমান সংসদ সদস্য ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়াকে আবারো দেওয়া হবে মনোনয়ন- তা নিয়ে এলাকাবাসীর মাঝে চলছে গুঞ্জন। তবে আজ-কালের মধ্যে  মজাজোটের প্রার্থী দলীয়ভাবে ঘোষণা হতে পারে।

বিশ্বনাথ ও ওসমানীনগর উপজেলা নিয়ে গঠিত সিলেট-২ আসন। এই আসনকে প্রধান দুই রাজনৈতিক দলই অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করে থাকেন। গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির সঙ্গে সমঝোতায় এখানে আওয়ামী লীগ থেকে কেউ প্রার্থী হননি। বরাবরই এই আসনে আওয়ামী লীগ থেকে একাধিক প্রার্থী মনোনয়ন প্রাপ্তির জন্য লড়াই করেন। আর এতে দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ।

এবারো এর ব্যতিক্রম নয়। আগামী জাতীয় নির্বাচনে এই আসন থেকে লড়তে ইতিমধ্যে আওয়ামী লীগের দুই প্রার্থী ছিলেন মাঠে। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরী ও যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী। দুই উপজেলায় তাদের অনুসারীরা নিজ নিজ নেতার মনোনয়ন প্রাপ্তির ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। বর্তমানে তাঁরা ঢাকায় অবস্থান করছেন।

দলীয় প্রার্থী হয়ে যে কেউ এলাকা ফিরতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। জাতীয় পার্টির বিশ্বাস বর্তমান সংসদ সদস্য ইয়াহইয়া চৌধুরী মহাজোটের প্রার্থী হবেন।   



মন্তব্য