kalerkantho


বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

কৃষিতে দক্ষ জীবন গড়তে সম্প্রসারণ মাঠ সফর

আবুল বাশার মিরাজ, বাকৃবি    

১৬ নভেম্বর, ২০১৮ ২০:৩৪



কৃষিতে দক্ষ জীবন গড়তে সম্প্রসারণ মাঠ সফর

বাংলাদেশের প্রশাসনিক কর্মকাণ্ডের সর্বনিম্ন স্তর হচ্ছে উপজেলা।

দেশের গবেষণালব্ধ কৃষি প্রযুক্তি কৃষকের দোরগোড়ায় পৌঁছানো, উপজেলার সাংগঠনিক রূপরেখা, কর্মপদ্ধতি ও বার্ষিক কর্মপরিকল্পনার সঙ্গে  পরিচয় করিয়ে দিতে সম্প্রতি নিকট ভবিষ্যতের কৃষি প্রকৌশলীদের জন্য শিক্ষা সফরের আয়োজন করে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) কৃষি সম্প্রসারণ শিক্ষা বিভাগ।

সম্প্রতি সাত দিনব্যাপী এ মাঠ সফরে অংশগ্রহণ করে কৃষি প্রকৌশল ও কারিগরী অনুষদের ৩৫ জন শিক্ষার্থী। শিক্ষা সফরে উল্লেখিত বিভাগের জ্যেষ্ঠ  শিক্ষক ও কৃষি মিউজিয়ামের বর্তমান পরিচালক প্রফেসর মো. আফজাল হোসেনের নেতৃত্বে শিক্ষার্থীরা গিয়েছিলন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের জেলা কিশোরগঞ্জের হাওর অধ্যুষিত নিকলী উপজেলায়।

সম্প্রসারণ মাঠ সফর কার্যকর করতে আগে থেকেই গঠিত হয় বেশ কয়েকটি উপ-কমিটি। পরিকল্পনা অনুযায়ী সকাল ৮টায় কৃষি সম্প্রসারণ ভবনের সামনে থেকে শুরু হয় আমাদের যাত্রা। বাকৃবি ক্যাম্পাস ত্যাগ করার পর নিজেদের পরিপাটি রূপ ধরা দিল। বাসের ভেতর শুরু হয় উৎসবের কলোরব আর আনন্দে  মাতামাতি। বাসের গতি বাড়ার সাথে সাথে বাড়তে থাকে হাওরের আঞ্চলিক গান, আড্ডা আর হৈ-হুল্লোড়।

দুপুর ১২টায় নিকলী উপজেলায় পৌঁছানোর পরপরই উপজেলা পরিষদে অনুষ্ঠিত হয় সফরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। এর আগে সবাইকে নিকলী উপজেলার পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. হারুন-অর রশিদ। শিক্ষার্থীরা ছিলেন  নিকলী উপজেলার ডরমেটরিতে।

পরদিন শুরু হয় উপজেলার কর্মকাণ্ড নিয়ে কর্মকর্তাদের বিভাগীয় উপস্থাপন আর তথ্য সংগ্রহের কাজ। আর গভীর রাত পর্যন্ত চলে শিক্ষার্থীদের  সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মহড়া। এই সফর ছিল ভবিষ্যত কর্মজীবনে কঠোর পরিশ্রমের পূর্ব প্রস্তুতি। চলতে থাকে উপজেলা পর্যায়ে মৎস্য, কৃষি, পল্লিউন্নয়ন, প্রাণিসম্পদ, মহিলাবিষয়ক অফিস, ভূমি অফিস ও জাতি গঠনমূলক দপ্তরগুলির উদ্দেশ্য, রূপরেখা, কর্মপদ্ধতি, বার্ষিক কর্ম পরিকল্পনার সঙ্গে পরিচিত হওয়ার মাধ্যমে ভবিষ্যতের যোগ্য সম্প্রসারণ কর্মকর্তা হিসেবে নিজেকে গড়ে তোলার প্রয়াস।

পঞ্চম দিন সন্ধ্যায় হয় সমাপনী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।  



মন্তব্য