kalerkantho


ভোলায় ১১০ কেজি হরিণের মাংসসহ আটক ২

ভোলা প্রতিনিধি   

১৪ নভেম্বর, ২০১৮ ১৫:৩৬



ভোলায় ১১০ কেজি হরিণের মাংসসহ আটক ২

ভোলার বোরহানউদ্দিনের টবগি ইউনিয়নের ২ নম্বার ওয়ার্ড থেকে ১১০ কেজি হরিণের মাংস ও ১টি চামড়াসহ ঝন্টু চন্দ্র দাস ও মাহেন্দ্র ড্রাইভার হাফিজ নামে দুই যুবককে আটক করেছে থানা পুলিশ। তবে এ হরিণের মাংস পাচারের মূলহোতা ভোলা সদর রোডস্থ হোটেল আলাউদ্দিনের মালিক মো. আলাউদ্দিনকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। এ হরিণের মাংস ভোলা থেকে পাচারের সাথে আলাউদ্দিন দীর্ঘদিন যাবৎ জড়িত। তিনি ঘটনার সময় পালিয়ে যান।

আজ বুধবার ভোর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দুই যুবককে আটক করা হয়। ঝন্টু চন্দ্র দাস পটুয়াখালী জেলার বাউফল উপজেলার উত্তর রাজনগর এলাকার অমল চন্দ্র দাসের ছেলে। তবে ঝন্টু দাস হোটেল আলাউদ্দিনে কর্মচারী ও হরিণের মাংস পাচারের সাথে দীর্ঘ দিন আলাউদ্দিনের হয়ে কাজ করে আসছে বলে পুলিশ জানায়।

বোরহানউদ্দিন থানার অফিসার্স ইনচার্জ অসিম কুমার জানান, বুধবার ভোর রাতে বোরহানউদ্দিন উপজেলার টবগী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডে তারা টহল পুলিশের দায়িত্ব পালনকালে তাকে রাস্তার উপর মাংস ও চামরাসহ আটক করেন। এ সময় তার সাথে থাকা অপর সঙ্গীরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে তাকে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে জানায়, আটকৃত মাংস ও চামড়া ভোলা সদরে অবস্থিত আলাউদ্দিনের হোটেলের মালিক আলাউদ্দিনের। আটকৃতসহ তার সঙ্গীয়দের বিরুদ্ধে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে মামলা দায়েরে প্রস্তুতি চলছে। তবে এ বিষয়ে হরিণের মাংস পাচার মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এএসআই জ্ঞান কুমার কোনো বক্তব্য দিতে রাজী হননি এবং এলামেলো কথা বলেন।



মন্তব্য