kalerkantho


শিশু পার্ক বন্ধ করে লেডিস ক্লাব

নাটোর প্রতিনিধি    

৯ নভেম্বর, ২০১৮ ১৬:৫৪



শিশু পার্ক বন্ধ করে লেডিস ক্লাব

নাটোরে শিশু পার্কে প্রাচীর দিয়ে পার্কটি বন্ধ করে দিয়েছে জেলা প্রশাসন। গতকাল বৃহস্পতিবার (৯ নভেম্বর) এটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

জেলা প্রশাসন, পৌরসভা ও স্থানীয়রা জানায়, নাটোরকে মহকুমা ঘোষণা করার পর শহরের কান্দিভিটা এলাকায় তৎকালীন এসডিপিও'র (সাব ডিভিশনাল পুলিশ অফিসার) বাসভবনের উত্তর-পূর্ব কোণে একটি শিশু পার্ক গড়ে তালা হয়। এরপর স্থানীয় শিশুরা সেখানে যেতে শুরু করলে তাদের যাতায়াতের সুবিধার জন্য আলাদাভাবে গেইট নির্মাণ করা হয়। দীর্ঘদিন ধরে পার্কটি শিশুদের বিনোদনের জন্য ব্যবহৃত হয়ে আসছিল।

১৯৮৪ সালে নাটোর জেলা শহরে উন্নীত হলে আলাদাভাবে জেলা প্রশাসকের বাসভবন নির্মাণ করা হলে সেখানে জেলা প্রশাসক বসবাস করছেন। এরপর থেকে এসডিপিও'র বাসভবনটি লেডিস ক্লাব হিসেবে কর্মকর্তাদের স্ত্রী-কন্যারা ব্যবহার করে আসছেন। অপরদিকে যথাযথ সংরক্ষণ না করায় এক সময় শিশু পার্কটি পরিত্যক্ত হয়ে পড়ে।

নাটোর পৌরসভা প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ দিতে না পারায় পার্কটি সংস্কার করা সম্ভব হয়নি। এ অবস্থায় বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সেখানে প্রাচীর দিয়ে শিশু পার্কটির প্রবেশ পথ বন্ধ করে লেডিস ক্লাবের সাইন বোর্ড টাঙিয়ে দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক জাকির তালুকদার বলেন, প্রায় দেড় শ বছরের পুরনো নাটোর পৌরসভা। আমরা জন্মের পর থেকেই এখানে শিশু পার্ক দেখে আসছি। কিন্তু হঠাৎ করে শিশু পার্ক বন্ধ করে লেডিস ক্লাবের সাইন বোর্ড টাঙিয়ে দেওয়ায় আমরা অবাক হয়েছি।' তিনি শিশুদের বিনোদনের জন্য শিশু পার্কটি খুলে দেওয়ার দাবি জানান।

নাটোর পৌরসভার মেয়র উমা চৌধুরী বলেন, 'শিশু পার্কটি শিশুদের বিনোদনের জন্য ব্যবহৃত হয়ে আসলেও জায়গাটি এখন পরিত্যক্ত। তাছাড়া ওই জায়গাটি পৌরসভার নয়। সুতরাং আইনিভাবে আমার বাধা দেওয়ার সুযোগ নেই।' 

নাটোরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (এসি ল্যান্ড) শামিম ভূঁইয়া বলেন, 'এটি সরকারের জায়গা। সুতরাং সরকারের জায়গা সংরক্ষণের জন্যই আমরা প্রাচীর দিচ্ছি।'  



মন্তব্য